বকেয়া বেতনের দাবিতে রাস্তায় থালা পেতে বিক্ষোভে সামিল ফুলেশ্বরের শতাধিক মিল শ্রমিক

নিজস্ব সংবাদদাতা : বকেয়া বেতনের দাবিতে বিক্ষোভে সামিল হলো শতাধিক মিল শ্রমিক। মিলের সামনের রাস্তায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে খালি থালা পেতে বসে বিক্ষোভ দেখান তারা।

ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকালে উলুবেড়িয়া থানার ফুলেশ্বরের কানোরিয়া জুট মিলে। শ্রমিকদের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরেই মিল কর্তৃপক্ষ মিল বন্ধ করে দিলেও তাদের বকেয়া বেতন দিচ্ছেনা।

তারা লক ডাউনের কারণে সমস্যায় পড়ায়, বাধ্য হয়েই তারা বিক্ষোভে সামিল হয়েছেন। জানা গেছে প্রায় এক বছর এই মিলের উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। সেই সময় সেখানে প্রায় ৫০০ জন শ্রমিক কাজ করতেন।

শ্রমিকদের অভিযোগ সেই সময় মিল কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের ২৬ দিনের বকেয়া বেতন ও গ্রাচুইটি দ্রুত মিটিয়ে দেওয়ার কথা জানালেও প্রায় এক বছর কেটে গেলেও বকেয়া বেতন পরিশোধ করেনি। শ্রমিকরা জানান লক ডাউনের জন্য আমরা খুব সমস্যায় পড়েছি।

তাই বাধ্য হয়েই আজ থালা পেতে রাস্তায় বসেছি। তারা আরও জানান মিল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল মিলের মালপত্র বিক্রি করে তাদের বকেয়া মিটিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু তারা কথা রাখেনি। মিলের শ্রমিক সেখ সাবির আহমেদ বলেন শ্রমিকদের বকেয়া নিয়ে বিভিন্ন মহলে বারবার জানানো সত্ত্বেও কোনো সুরাহা হয়নি।

মিল বন্ধের পর বিভিন্ন ধরনের কাজ করে সংসার চালাচ্ছিলাম। কিন্তু লক ডাউনের কারনে কাজ নেই। এইভাবে চললে না খেতে পেয়ে মরতে হবে। তিনি বলেন সরকার হয় খাবার ব্যাবস্থা করুক নচেৎ মেরে ফেলুক।

আর এক শ্রমিক আনিসুর রহমান বলেন এলাকার আশপাশের মিল গুলো শ্রমিকদের বেতন মিটিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি অগ্রিম টাকা দিচ্ছে। আর আমরা আমাদের প্রাপ্য পাচ্ছিনা। এমন চললে পরিবার সহ না খেতে পেয়ে মরতে হবে।

উলুবেড়িয়া পূর্ব কেন্দ্রের বিধায়ক ইদ্রিস আলী ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন শ্রমিকদের অভিযোগ যথাযথ। বিষয়টি নিয়ে মিল কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বললেও কোন সদার্থক বিষয় উঠে আসেনি। তিনি বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে জানাবেন বলেও তিনি জানান।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা