স্ত্রীকে খুন করে আটক স্বামীর মৃত্যু হলো উলুবেড়িয়া হাসপাতালে

নিজস্ব সংবাদদাতা : নিজের স্ত্রীকে খুন করে বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হ‌ওয়ার চেষ্টা করেছিল বাগনানের হরিনারায়নপুরের চন্দন বিশ্বাস। ঘটনায় বাগনান থানার পুলিশ তাকে আটক করে বাগনান হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে তাকে উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই শুক্রবার গভীর রাতে তার মৃত্যু হয়।

উল্লেখ্য আদপে বাগনানের আন্টিলার বাসিন্দা চন্দন বিশ্বাস বছর দুয়েক আগে মীনা বিশ্বাসকে বিয়ে করে বাগনানের‌ই হরিনারায়নপুরের একটি বাড়িতে সস্ত্রীক ভাড়া থাকতে শুরু করেন। নিজেকে তিনি রেলকর্মী হিসাবে পরিচয় দিতেন। বিগত কিছুদিনে তার বাজারে বহু টাকা দেনা হয়েগিয়েছিল। সেই কারণে প্রায়শই পাওনাদাররা তার বাড়িতে আসতো। সেই নিয়ে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে সংসারে অশান্তি চুড়ান্ত পর্যায়ে উঠেছিল।

গত বুধবার পাওনাদাররা তার বাড়িতে গিয়ে ডাকাডাকি করার পরেও, কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে, জানালা দিয়ে ঘরে উঁকি দিয়ে মিনা বিশ্বাসকে ঘরের মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। পরে বাগনান থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মিনা বিশ্বাসের দেহ উদ্ধারের পাশাপাশি পাশের ঘর থেকে চন্দন বিশ্বাসকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর পাশাপাশি পুলিশ চন্দন বিশ্বাসকে আটক করে হাসপাতালে ভর্তি করে। চন্দনের মৃত্যুর ফলে তদন্ত প্রক্রিয়া অনেকটাই ধাক্কা খাবে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা