শ্যামপুরের গ্রামে সানাইয়ের সুরে বাজত দূর্গা পুজোর আগমনী

নিজস্ব সংবাদদাতা : প্রায় ৪০ বৎসর হয়ে গেল বন্ধ হয়েছে শ্যামপুর থানার কমলপুর গ্রামের নহবতখানা থেকে ভেসে আসা সানাই এর সুর। সে সময় মাইকের চল না থাকায় নহবত খানার সানাইয়ের সুরেই পুজোর নিমন্ত্রণ পেতেন গ্রামবাসীরা। প্রায় ৮১ বছর আগে গ্রামের মধ্যে নহবতখানা খানা তৈরি করেছিলেন কমলপুরের জমিদার বৈতালিক পরিবার।দূর্গা পুজোর উৎসবে সানাইয়ের সুরে মুখরিত হয়ে উঠতো কমলপুর গ্রামের আকাশ বাতাস। জমিদারি প্রথা বন্ধ হয়েছে ৪০ বছর আগেই। বন্ধ হয়ে গেছে সানাইয়ের সুর। গ্রামের সুধাংশু বৈতালিক, সতীশ মাইতি, জীবনকৃষ্ণ ভৌমিক চিকিৎসক শশধর সামন্ত ও আরো অনেক গ্রামবাসী দের প্রচেষ্টায় জমিদার পরিবারের সহায়তায় কমলপুর গ্রামে দুর্গাপূজা শুরু হয়। সালটা ছিল ১৩৪৬ বঙ্গাব্দ। বর্তমান সময়ে কমলপুরের পূজো বারোয়ারি পূজার রূপ নিয়েছে। কমলপুর গ্রামের প্রশান্ত সাঁতরা বলেন জমিদারি থাকাকালীন নহবতখানা টি নির্মাণ করেন তৎকালীন জমিদার। পুজোয় সানাইয়ের সুরে জমজমাট হয়ে উঠতো পূজা মণ্ডপ। তিনি আরো জানান নহবতখানার ৭৫ বছর পূর্তি তে নহবতখানাটি সংস্কার করে সানাই বাজানো হয়েছিল। বৈতালিক পরিবারের সদস্য রত্নাকর বৈতালিক বলেন আর্থিক অবস্থা খারাপ থাকায় নহবতখানাটিতে সানাইয়ের সুর বন্ধ হয়ে যায়। তিনি আরো বলেন নহবতখানাটিকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য সকলের প্রচেষ্টা প্রয়োজন। সকলে এগিয়ে আসলেই আবার শারদপ্রাতে সানাইয়ের সুরে কমলপুর সহ শ্যামপুরের আকাশ বাতাস মুখরিত হয়ে উঠবে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা