বেতনবৃদ্ধি, চাকরির স্থায়ীকরণের দাবিতে হাওড়া পুরসভায় সাফাই কর্মীদের বিক্ষোভ, কর্মবিরতি

নিজস্ব সংবাদদাতা : একাধিকবার বেতন বৃদ্ধি, চাকরির স্থায়ীকরণের দাবি জানিয়েছেন। একের পর এক প্রশাসক বদলেছে। অন্যদিকে বেতন বৃদ্ধির দাবিও জোরালো হয়েছে। কিন্তু তারপরও বাড়েনি বেতন, কিমবা চাকরির স্থায়ীকরণও হয়নি। অবশেষে ভোটের আগে নিজেদের দাবি আদায় করতে আন্দোলনের পথকেই বেছে নিলেন হাওড়া পৌর নিগমের সাফাই কর্মীরা। সোমবার হাওড়া পুরসভার মূল গেটের সামনে গেট বন্ধ করে দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখালেন হাওড়া পৌরনিগনের সাফাই কর্মীরা।

তাঁদের দাবি, অবিলম্বে সাফাই কর্মীদের বেতন বাড়াতে হবে, চাকরির স্থায়ীকরণ করতে হবে এবং কর্মরত অবস্থায় কারও মৃত্যু হলে তাঁদের সন্তানকে চাকরি দিতে হবে। এই সমস্ত দাবি নিয়েই সোমবার প্রথমে বঙ্কিম সেতুর নীচে জড়ো হন হাওড়া শহরের কয়েকশো সাফাই কর্মী। পুরুষদের পাশাপাশি মহিলা কর্মীরাও বিক্ষোভে সামিল হন। সেখানে এক দফা বিক্ষোভ প্রদর্শনের পর পুরনিগমের গেটের কাছে রাস্তায় বসে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। দফায় দফায় চলে বিক্ষোভ।

অন্যদিকে, গত তিনদিন ধরে কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন হাওড়ার শহরের কয়েক হাজার সাফাই কর্মী। এর জেরে কার্যত নরকের চেহারা নিয়েছে হাওড়া শহরের বিভিন্ন এলাকা। উপচে পড়ছে ভ্যাট। দুর্গন্ধে টেকা দায়। জঞ্জাল যন্ত্রণায় হাওড়া পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় এখন ত্রাহি ত্রাহি রব। দাবি না মানা হলে এই কর্মবিরতি জারি রাখার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন হাওড়া শহরের সাফাই কর্মীরা। এ-প্রসঙ্গে রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায় জানান,”পুর কমিশনারের সঙ্গে কথা বলেছি। পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের সেক্রেটারির সঙ্গেও কথা হয়েছে। খুব শীঘ্রই সমাধান সূত্র মিলবে।”

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা