পুজোর মধ্যেই ঝড়ের সম্ভাবনা! মৎসজীবিদের গভীর সমুদ্রে যেতে নিষেধ

নিজস্ব সংবাদদাতা : মহাষষ্ঠীর সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার। যে কোনও মুহূর্তেই যে বৃষ্টি নামতে পারে তা একপ্রকার স্পষ্ট। বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপের জেরেউ এমন পরিস্থিতি বলে জানা গেছে। দক্ষিণবঙ্গের দুই ২৪ পরগণা ও পূর্ব মেদিনীপুরে বিকেল থেকে ঝড় বৃষ্টির জোড়া দাপট দেখা যেতে পারে বলে হাওয়া অফিস জানাচ্ছে।

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, একবার বৃষ্টি শুরু হলে তা চলতে পারে অষ্টমী পর্যন্ত। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে উপকূলবর্তী অঞ্চল অর্থাৎ পূর্ব মেদিনীপুর , উত্তর ২৪ পরগনা ও দক্ষিণ ২৪ পরগণায় ঝড়ো হাওয়া বইবে ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে। সর্বোচ্চ গতি হতে পারে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত। এমন হাওয়া দেবে ২২ তারিখ বিকেল থেকে টানা ২৪ তারিখ পর্যন্ত। ফলে আম্ফান ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চলে আবারও ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা থাকছে। এদিকে ২৩ ও ২৪ তারিখ কলকাতা , হাওড়া, হুগলীতে ঝড়ো হাওয়ার গতিবেগ হতে পারে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার। সর্বোচ্চ গতি হতে পারে ৫০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা।

বৃষ্টির বিষয়ে হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, ষষ্ঠীতে উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় ভারী বৃষ্টি হতে পারে। সপ্তমীর দিন কলকাতাতেও ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা। উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুরে বিক্ষিপ্ত ভাবে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ অর্থাৎ কোথাও কোথাও ২০০ মিলিমিটার পর্যন্তও বৃষ্টির আশঙ্কা। হাওড়া, হুগলি, নদিয়া জেলাতেও ভারী বৃষ্টি হতে পারে। অন্য জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস। অষ্টমীতেও এইভাবেই চলবে বৃষ্টি। ২২ থেকে ২৪ অক্টোবর মৎস্যজীবীদের গভীর সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা