বাগনানে তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যাওয়া সমর্থকরা ফিরে এলেন তৃণমূলেই

নিজস্ব সংবাদদাতা : কোনো‌ কারখানা‌ বা কোনো ব্যাবসায়ীর কাছ থেকে তোলা নেওয়া যাবেনা। যদি কেউ তোলা চায় প্রতিবাদ করুন। কাজ না হলে আমাকে বলুন, শনিবার সন্ধ্যায় বাগনানের দেউলটির একটি জনসভায় জানালেন বাগনানের বিধায়ক অরুনাভ সেন। সম্প্রতি এই এলাকার কিছু তৃনমূল সমর্থক স্থানীয় নেতৃত্বের প্রতি অসন্তুষ্ট হয়ে তৃনমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন। তাদের মধ্যে দুই জন আয়ুব আলী ও সেখ জুন্নুর সদলবলে এদিন তৃনমূলে ফিরে আসেন। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিয়ে অরুনাভ সেন বলেন দলের কিছু নেতার কাজ কর্মে সাধারণ কর্মীদের মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছিল।

তাদের হয়ে সাধারণ কর্মীদের কাছে তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করে বলেন দলের নাম ভাঙিয়ে যারা অনৈতিক কাজ করবেন দল কখনো তাদের পাশে দাঁড়াবে না। সভামঞ্চ থেকে তিনি শরৎ ও ওড়ফুলি গ্রাম পঞ্চায়েতের দলের কমিটি ভেঙে দিয়ে তিনি নতুন কমিটি তৈরি করা হবে বলে ঘোষণা করেন। বিজেপি’র বিরুদ্ধে তোপ দেগে তিনি বলেন গত একমাসে বিজেপি ছয় নং জাতীয় সড়কের পাশের কারখানা গুলি থেকে আঠারো লক্ষ টাকা তোলা আদায় করেছে। সভা শেষে এলাকায় তৃনমূল ও বিজেপি’র মধ্যে সংঘর্ষের ফলে প্রায় এক মাস বন্ধ থাকা দলীয় কার্যালয়টি পুনরায় খোলা হয়। সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হাওড়া গ্রামীণ জেলার তৃণমূল সভাপতি তথা উলুবেড়িয়া দক্ষিণ কেন্দ্রের বিধায়ক পুলক রায়, উদয়নারায়নপুরের বিধায়ক সমীর পাঁজা, পাঁচলার বিধায়ক গুলশান মল্লিক, হাওড়া জেলা পরিষদের সহ সভাপতি অজয় ভট্টাচার্য সহ অন্যান্যরা।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা