বাগনানে বিজেপি কর্মীদের গ্রেফতার, প্রতিবাদে পথ অবরোধ, টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ বিজেপির

নিজস্ব সংবাদদাতা : বাগনানে গুলিবিদ্ধ বিজেপি নেতা কিঙ্কর মাঝির মৃত্যুর প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার ১২ ঘন্টার বাগনান বন্ধের ডাক দিয়েছিল বিজেপি। বন্ধকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বাগনান চত্বর। বন্ধের সমর্থনে মিছিল করতে গিয়ে বাগনান থেকে গ্রেফতার হয়েছিলেন ৬ জন বিজেপি কর্মী।

এই ঘটনার প্রতিবাদে হাওড়া সহ সারা রাজ্যে বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দিয়েছিলেন বিজেপির রাজ্য যুব মোর্চার সভাপতি তথা সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। সেই মোতাবেক আজ থেকেই গ্রামীণ হাওড়ার বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ কর্মসূচিতে সামিল হল বিজেপি নেতা-কর্মীরা।

শুক্রবার বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা উলুবেড়িয়ার বিভিন্ন জায়গায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি পথ অবরোধ করেন। উলুবেড়িয়ার ফুলেশ্বর বাসস্ট্যান্ড, গরুহাটা, কুলগাছিয়ার চন্ডীপুর, বাগনান, আমতা সহ বিভিন্ন জায়গায় পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা।

তবে বাগনানে পথ অবরোধ করতে গিয়ে পুলিশের বাধার মুখে পড়েন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। বাগনান লাইব্রেরী মোড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি করতে গেলে পুলিশ তাদের বাধা দেয় বলে অভিযোগ। পুলিশ লাঠি উঁচিয়ে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয় বলে জানা গেছে।

হাওড়া গ্রামীণ জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক প্রত্যুষ মন্ডল বলেন, “অবিলম্বে বাংলায় খুনের রাজনীতি বন্ধ করতে হবে এবং বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া বন্ধ করতে হবে। আজকের এই অবরোধ শুধু বিজেপির নয়, এটা সাধারণ মানুষের ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ তৃণমূলের বিরুদ্ধে।”

এদিকে গ্রেফতার হওয়া ৬ বিজেপি নেতা-কর্মীকে শুক্রবার উলুবেড়িয়া মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক তাদের ১০ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানা গেছে। সংশ্লিষ্ট বিজেপি নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে পুলিশ অবৈধভাবে জমায়েত, সরকারি কাজে বাধা, বিস্ফোরক রাখা সহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করেছে বলে জানা গেছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা