আমতায় ‘তপশিলি সংলাপ’ ট্যাবলোর সূচনা, পাড়ায় পাড়ায় ঘুরে তুলে ধরবে মুখ্যমন্ত্রীর কর্মকান্ড

নিজস্ব সংবাদদাতা : একুশের বিধানসভাকে সামনে রেখে ইতিমধ্যেই রণকৌশল সাজাতে শুরু করেছে রাজ্যের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলি। প্রশান্ত কিশোরের মস্তিষ্কপ্রসূত বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে তৃণমূল স্তরের মানুষের কাছে পৌঁছে যেতে উদ্যোগী হয়েছে এরাজ্যের শাসকদল। এবার তপশিলি সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষের কাছে আরও বেশি করে পৌঁছে যাওয়ার লক্ষ্যে ‘তপশিলি সংলাপ’ নামক বিশেষ কর্মসূচির সূচনা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

আজ থেকে এই প্রচার কর্মসূচি শুরু হল গ্রামীণ হাওড়ার আমতা বিধানসভা কেন্দ্রে। আজ সকালে আমতা-২ ব্লকের উত্তর খালনার সাবগাছতলার তপশিলি এলাকায় ‘তপশিলি সংলাপ’ নামক বিশেষ প্রচার গাড়ির উদ্বোধন করেন হাওড়া গ্রামীণ জেলা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি তথা তৃণমূলের হাওড়া জেলা মুখপাত্র সুকান্ত কুমার পাল। এছাড়াও এদিন উপস্থিত ছিলেন আমতা কেন্দ্র তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সেলিমুল আলম, যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জন্মেঞ্জয় গুঁই সহ অন্যান্যরা।

জানা গেছে, এই কর্মসূচিতে মূলত তপশিলি নেতাদের উপর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তাঁরাই এই গাড়ির সাথে বিভিন্ন তপশিলি এলাকায় গিয়ে সংশ্লিষ্ট সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কর্মকান্ড তুলে ধরবেন। শুনবেন মানুষের অভাব-অভিযোগ।

সুকান্ত কুমার পাল বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে বাংলার তপশিলি সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষের জন্য যে সকল জনকল্যাণমুখী প্রকল্প ও বিপুল কর্মকান্ড বাস্তবায়িত হয়েছে তার কথা গ্রাম বাংলার মানুষের দ্বারে পৌঁছে দেওয়ার কাজ করবে ‘তপশিলি সংলাপ’। প্রসঙ্গত, বিপুল উন্নয়ন করা সত্ত্বেও জঙ্গলমহলে গত লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল আশানুরূপ ফলাফল করতে ব্যর্থ। সেই ঘাটতি পূরণে তৃণমূলের এই প্রচার কর্মসূচি অনেকটাই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা