আমতার গ্রামে গোলমালের ঘটনায় গ্রেফতার ৬, উদ্ধার পাইপগান

নিজস্ব সংবাদদাতা : আমতার চন্দ্রপুর এলাকায় ডাব বিক্রিকে কেন্দ্র করে গোলমালের ঘটনায় ১ মহিলা সহ ৬ জনকে গ্রেফতার করল আমতা থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে এদের গ্রেফতার করা হয়। ধৃতদের বিরুদ্ধে মারধর, অস্ত্র মজুত, সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে আমতা থানার পুলিশ।

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার সকালে চন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্ভুক্ত উত্তর হরিশপুর এলাকায় এক ব্যবসায়ী ডাক বিক্রি করছিলেন। অভিযোগ, ওই বিক্রেতা বেশি দামে ডাব বিক্রি করছিলেন। তা নিয়ে প্রতিবাদ করলে শুরু হয় বচসা। এমনকি তা হাতাহাতির আকার নেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন চন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপ-প্রধান সেখ রজব আলি। অভিযোগ, রজব আলির উপর চড়াও হয় দুষ্কৃতিরা।

তাকে কিল-ঘুষির পাশাপাশি রড, ইট দিয়ে মারা হয় বলেও অভিযোগ। এই ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। অভিযোগ, গোলমালের সময়ই হঠাৎই চলে গুলি। গুলি চালানোর জেরে এক স্থানীয় বাসিন্দা আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসে বিশাল পুলিশ বাহিনী। ঘটনার পর থেকেই থমথমে চন্দ্রপুর এলাকা। বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ ওই এলাকা থেকে ২ টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে বলে জানা গেছে। অভিযুক্তদের শুক্রবার উলুবেড়িয়া মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক ৫ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন।

হাওড়া গ্রামীণ জেলা পুলিশের সুপার সৌম্য রায় জানান, “ওই এলাকা থেকে ২ টি পাইপগান উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধৃতদের আরও জেরা করা হবে।” যদিও এই ঘটনায় স্থানীয় বেশ কিছু মানুষ পুলিশের বিরুদ্ধে অত্যাচারের অভিযোগ করেছেন। অভিযোগ, পুলিশ বাড়ির মহিলাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার পাশাপাশি বাড়িতে ভাঙচুর করেছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা