ফোনের বদলে জলের বোতল! অনলাইনে মোবাইল কিনে প্রতারিত আমতার দুই যুবক

নিজস্ব সংবাদদাতা : ডিজিটাল যুগে ক্রমশ অনলাইন শপিংয়ের চাহিদা বাড়ছে। করোনা আর লকডাউনের জেরে অনলাইন শপিংয়ের হার একলাফে কয়েকগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এবার অনলাইনে জিনিস কিনে প্রতারণার শিকার হলেন আমতার খড়দহ গ্রামের এক যুবক। অর্ডার দিয়েছিলেন ১৫ টি মোবাইল ফোন, তার বদলে মিলল সাতখানা জলের বোতল। আর এই ঘটনাতেই চক্ষু চড়কগাছ খড়দহ গ্রামের যুবক আনোয়ার আলির।

সূত্রের খবর, আমতা-১ ব্লকের খড়দহ বাগানপাড়ার বাসিন্দা সেখ আনোয়ার আলি গত ২৯ শে নভেম্বর একটি জনপ্রিয় বহুজাতিক সংস্থায় ১৫ টি মোবাইল ফোন অর্ডার করেন। গত ৬ ই ডিসেম্বর রবিবার এক যুবক অর্ডার করা সামগ্রী ডেলিভারিতে দিতে আনোয়ারের বাড়িতে আসেন। আনোয়ার বাড়িতে না থাকায় তাঁর মা পার্সেলগুলি গ্রহণগুলি গ্রহণ করেন। সোমবার পার্সেলগুলি খুলতে গিয়েই চমকে ওঠেন আনোয়ার। বাক্স খুলতেই দামী মোবাইলের পরিবর্তে বেড়িয়ে আসে জলের বোতল।

এহেন প্রতারণার শিকার হওয়া আনোয়ার বলেন, “আমি দীর্ঘদিন ধরে অনলাইনে বিভিন্ন ফোন কিনে ব্যবসা করি। প্রায় ৭৭ হাজার টাকার বিনিময়ে ১৫ টি ফোন বুক করেছিলাম। কিন্তু তার বদলে মিলল সাতটি জলের বোতল।” এই ঘটনার পরই তিনি সংশ্লিষ্ট বহুজাতিক সংস্থার কাস্টমেয়ার কেয়ারে ফোন করে সমস্ত ঘটনাটি বিস্তারিত জানান।

তিনি বলেন, “সংস্থাটি দ্রুত তদন্ত করে আমার বুক করা মোবাইলগুলি পাঠানোর আশ্বাস দিয়েছে।” শুধু আনোয়ারই নন, একই ঘটনার সাক্ষী থেকেছেন পেঁড়ো এলাকার আরেক যুবক শেখ শাহনাজ। তিনি ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে ফোন বুক করলে তাঁর কাছেও ফোনের বদলে জলের বোতল এসে পৌঁছেছে বলে জানান শাহনাজ।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা