কঙ্কালসার অবস্থা বাগনান-শ্যামপুর রোডের, ভোগান্তিতে সাধারণ মানুষ

নিজস্ব সংবাদদাতা : পুজোর কেনাকাটা প্রায় শেষের পথে। রবিবার মহালয়া। তারপরেই শুরু বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দূর্গা পূজা।কিন্তু বাগনান শ্যামপুর রোডের বেহাল অবস্থা এবং তার উপর এই কয়েক দিনের একটানা বৃষ্টি ভোগাচ্ছে শ্যামপুরবাসীকে। কঙ্কালসার রাস্তায় প্রায় দুর্ঘটনা ঘটছে। এক স্থানীয় বাসিন্দা জানান শেষবার রাস্তা সংস্কার হয়েছিল নতুন সরকার ক্ষমতায় আসার পর। তারপর বাগনান শ্যামপুর রোডে পিচের প্রলেপ পড়েনি। রাস্তায় গর্ত তৈরি হলে ইঁট ভাঙা বা লাল মাটি দিয়ে রাস্তার গর্ত বুজিয়ে দেয় সরকারি সংস্থা PWD, তাতে আরও বেহাল হয় রোডের অবস্থা।

একসময় যততত্র বাম্পার করার জন্য প্রায় দুর্ঘটনা ঘটত বাগনান শ্যামপুর রোডে। কিন্তু এখন ভোগাচ্ছে রাস্তায় পুকুর সমান গর্ত। রাস্তার বেহাল অবস্থার জন্য ক্ষোভে ফেটে পড়েন শ্যামপুর ও বাগনান বাসীর একাংশ। রাস্তা সম্প্রসারণ ও বাম্পার তুলে নেওয়ার কথায় সম্মতি জানায় PWD, তারপর শুরু হয় রাস্তা সংস্কারের কাজ। যান চলাচলের জন্য উপযুক্ত হতে আরো ২ বছর সময় লাগবে। সম্প্রসারণ এর জন্য রাস্তার দুই ধারে বড় বড় পাথর এর পাহাড় ও কাদামাটি মিলে মিশে থাকায় আরো বেহাল হয়ে পড়ে শ্যামপুরের এই গুরুত্বপূর্ন রাস্তা।

কখনো গর্তে পড়ে অটো উল্টে যায়, কখনো স্টোনচিপ রাখার কারণে রাস্তা পিছল হয়ে বাইক উল্টে যাচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের আশঙ্কা, পুজোর আগে সাময়িকভাবে রাস্তা মেরামতি না করলে ঘটে যেতে পারে বড়সড় দুর্ঘটনা। সোশ্যাল গ্রূপ আমরা শ্যামপুর (হাওড়া) বাসী গ্রূপের এক সদস্য জানান, পুজোর আগে আমরা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে শ্যামপুর ও বাগনান বাসীকে সর্তক করে প্রচার চালাবো। পুজোর কটা দিন হেলমেট পরার উপর জোর দেওয়া হবে। মত্ত অবস্থায় গাড়ি না চালায় প্রচার করে দেওয়া হবে আগাম সর্তকতা।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা