‘জয় শ্রী রাম’ বলায় শ্যামপুরে বিজেপি কর্মীকে মারধর, দেওয়া হল খুনের হুমকি! থানায় অভিযোগ দায়ের

নিজস্ব সংবাদদাতা : গতকাল অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভূমিপুজোকে কেন্দ্র করে আনন্দে মেতে উঠেছিল দেশের বিভিন্ন জায়গা। লকডাউনকে উপেক্ষা করেই বাংলাতেও খুশির আনন্দে মেতে ওঠেন বিজেপি-কর্মী সমর্থকরা। এরই মাঝে রাম মন্দির নিয়ে উচ্ছাস প্রকাশ করায় এক বিজেপি কর্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতিদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে গ্রামীণ হাওড়ার শ্যামপুর থানার কমলপুর এলাকায়। জানা গেছে, দুষ্কৃতিদের হামলায় আহত হয়ে ওই বিজেপি কর্মী বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আক্রান্তের নাম সুরজিৎ কুঁতি।

সূত্রের খবর, গতকাল রাত ৯ টা নাগাদ কমলপুর বাজার থেকে বাড়ি ফেরার সময় বিজেপি কর্মী সুরজিতের রাস্তা আটকায় দু’টি বাইক। অভিযোগ, বাইক থেকে নেমেই তার উপর চড়াও হয় সেখ সারাবুল ও সেখ কালো। মাথায় ইঁট দিয়ে আঘাত করার পাশাপাশি মুখে ঘুঁষি মারা হয় বলে অভিযোগ। আক্রান্তের অভিযোগ, “আমি যখন সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করি তখন ২-৩ জন আমার গলা টিপে ধরে বেধড়ক মারধর করে।” সুরজিতের আরও অভিযোগ, “আমি ‘জয় শ্রী রাম’ বলি বলে আমায় রামের কাছে পাঠিয়ে দেওয়ার কথা বলে দুষ্কৃতিরা। এর পাশাপাশি, আর যদি ‘জয় শ্রীরাম’ বলি আমায় ও আমার পরিবারের সদস্যদের মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।” ঘটনাস্থলে রাধাপুরের এক বাসিন্দা সুরজিতকে বাঁচাতে এলে তাকেও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। অবশেষে স্থানীয় মানুষ দক্ষিণ দুর্গাপুরের বাসিন্দা সুরজিৎ কুঁতিকে উদ্ধার করে কমলপুর হাসপাতালে নিয়ে যান। আপাতত সেখানেই তার চিকিৎসা চলছে। ইতিমধ্যেই শ্যামপুর থানায় এই ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা