পাঁচলায় বিজেপির যুব সমাবেশ, হাজির দিলীপ ঘোষ, উপচে পড়ল ভিড়

নিজস্ব সংবাদদাতা : “এখানে দল গঠন করার অধিকার আছে। হায়দ্রাবাদের মিম নেতা আসাউদ্দিন ওয়াইসির এরাজ্যে সংগঠন করার অধিকার আছে। দিদি যদি সংখ্যালঘুদের এতোই উন্নয়ন করে থাকেন তাহলে তাহলে এতো ভয় পাচ্ছেন কেন?” — মঙ্গলবার হাওড়ার পাঁচলার যুব সমাবেশ থেকে আব্বাস সিদ্দিকীর দলগঠন প্রসঙ্গে এভাবেই চড়া গলায় রাজ্যের শাসকের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি সাংসদ দিলীপ ঘোষ।

গ্রামীণ হাওড়ার পাঁচলার ধামসিয়ায় জাতীয় সড়ক সংলগ্ন সার্ভিস রোডের মঞ্চে দাঁড়িয়ে এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, “ভিন রাজ্য থেকে কেউ বাংলায় এলে তাঁদের বহিরাগত তকমা দেওয়া হচ্ছে। অথচ এ রাজ্য থেকে কেউ অন্য রাজ্যে গেলে তাঁদের বহিরাগত বলা হয় না। এটা বাংলার লজ্জা!” তিনি আরও বলেন, “বিজেপি মুসলিম বিরোধী নয়। এই সাড়ে ছ’বছরে কোনও সংখ্যালঘুদের এই দেশ থেকে বিতাড়িত করা হয়নি। বাংলার মুসলমানদের পুলিশ কেস ও ভয় দেখিয়ে রাখা হয়েছে।”

বাংলায় মুসলমানদের উন্নয়ন করতে দেয়া হয়নি, শিক্ষা-দীক্ষায় তাঁদের পিছিয়ে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন মেদিনীপুরের সাংসদ। হাওড়া গ্রামীণ জেলা বিজেপি সূত্রে জানা গেছে, এদিনের সমাবেশে বহু কর্মী-সমর্থক ভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে বিজেপিতে যোগদান করেন।

দিলীপ ঘোষ ছাড়াও যুব সমাবেশে উপস্থিত ছিল রাজ্য বিজেপির নেতা জয় ব্যানার্জী, বিজেপির রাজ্যনেতা অনুপম মল্লিক, হাওড়া গ্রামীণ জেলা বিজেপির নবনিযুক্ত সভাপতি প্রত্যুষ মন্ডল, হাওড়া সদর বিজেপির সভাপতি সুরজিৎ সাহা সহ অন্যান্যরা।

অন্যদিকে, আগামী শনিবার একই জায়গায় বিজেপির যুব সমাবেশের পাল্টা সভার ডাক দিল হাওড়া গ্রামীণ জেলা তৃনমূল কংগ্রেস। শনিবারের পাল্টা সভা থেকে দিলীপ ঘোষের বক্তব্যের জবাব দেওয়া হবে হাওড়া গ্রামীণ জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে জানা গেছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা