গ্রামীণ হাওড়া জুড়ে বাড়ছে করোনা, তৎপর প্রশাসন, চলছে মাইকিং, স্যানিটাইজেশন, সচেতনতার প্রচার

নিজস্ব সংবাদদাতা : রাজ্যের অন্যান্য প্রান্তের মতো গ্রামীণ হাওড়ার বিভিন্ন এলাকাতেও ব্যাপকভাবে বাড়ছে করোনা। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রামিতের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে সংক্রমণে রাশ টানতে তৎপর প্রশাসন। ইতিমধ্যেই করোনা সম্পর্কে সচেতনতার বার্তা দিতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং চালানো হচ্ছে গ্রামীণ হাওড়ার বিভিন্ন বাজার, রাস্তাঘাট, জনবহুল এলাকায়।

আমতা, উলুবেড়িয়া, বাগনান সব জায়গাতেই তৎপর প্রশাসন। অন্যদিকে, মাস্ক ব্যবহার করার আর্জি জানিয়ে পথে নামতে দেখা গেল পুলিশকেও। মঙ্গলবার বাউরিয়া থানার পক্ষ থেকে পথচলতি মানুষকে মাস্ক ব্যবহারের আর্জি জানানো হয়। এমনকি কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরাও এই সচেতনতার প্রচারে সামিল হন। যাঁরা মাস্ক ব্যবহার করছেন না তাঁদের মাস্ক দেওয়া হয়। আমতাতেও জোরকদমে চলছে মাইকিং।

‘নো মাস্ক, নো পেট্রোল’ এই নিয়ম চালু হয়েছে আমতা-২ ব্লকের বিভিন্ন পেট্রোল পাম্পগুলিতে। অন্যদিকে, প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাজার, দোকান, বাসস্ট্যান্ড সহ বিভিন্ন জায়গায় জোরকদমে স্যানিটাইজেশনের কাজ চলছে। মঙ্গলবার সকালে বাগনান স্টেশনে ট্রেনযাত্রীদের মাস্ক ব্যবহারের আর্জি জানিয়ে প্রচারে নামেন দক্ষিণ-পূর্ব রেলওয়ে (হাওড়া-জকপুর) প্যাসেঞ্জার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা।

পাশাপাশি, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতনতার বার্তা দিতে সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার করে লাগাতার প্রচার চালাচ্ছে আমতার অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’। তাঁদের পক্ষ থেকে মাস্ক, স্যানিটাইজার ব্যবহার, পারস্পরিক দূরত্ব মেনে চলার আর্জি জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বারেবারে পোস্ট করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা