হাওড়ায় সংশোধনাগারে বিচারাধীন বন্দীর মৃত্যু, পিটিয়ে মারার অভিযোগ, চাঞ্চল্য

নিজস্ব সংবাদদাতা : বিচারাধীন বন্দীর মৃত্যুকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল হাওড়া জেলা সংশোধনাগারে। জানা গেছে, মৃতের নাম সনাতন দাস(৩২)। মৃতের স্ত্রীর অভিযোগ, তার স্বামীকে জেলের মধ্যে পিটিয়ে মারা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, গত ২০১৯ সালেএ সেপ্টেম্বর মাসে ডোমজুড় থানার পুলিশ নারকোটিক এন্ড ড্রাগ সাবস্টেন্স আইনে আন্দুলের মহিয়াড়ির বাসিন্দা পেশায় গাড়িচালক সনাতন দাসকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার পর প্রায় দীর্ঘ কুড়ি মাস তিনি হাওড়া জেলে বন্দী। সোমবার সকালে সনাতন দাসের স্ত্রী খবর পান তার স্বামীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাওড়া জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খবর পেয়েই স্ত্রী কুসুম দাস জেলা হাসপাতালে ছুটে যান। সেখানে গিয়ে দেখেন তার স্বামী মারা গেছেন। কুসুম দাসের অভিযোগ, তার স্বামীকে পিটিয়ে মারা হয়েছে। ইতিমধ্যে হাওড়ার জেলাশাসককে এই মর্মে ইমেল মারফত অভিযোগ করেছেন মৃতের আইনজীবী।

হাওড়া জেলের সুপার দেবাশীষ মন্ডল জানান, নিয়ম মেনে দেহের পোস্টমর্টেমের পাশাপাশি ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্ত চলছে। পোস্টমর্টেম রিপোর্ট হাতে পেলেই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা