মায়াচর নৌকাডুবির ১২ দিন পরেও চালু হয়নি ফেরি, ভোগান্তিতে নিত‍্যযাত্রীরা

নিজস্ব সংবাদদাতা : গত ৩০ সেপ্টেম্বর মায়াচর থেকে পূর্ব মেদিনীপুরের দনিপুর যাওয়ার পথে জোয়ারের ধাক্কায় নৌকাডুবির ঘটনায় এখনো বন্ধ ফেরি সার্ভিস।

গতকাল বৃহস্পতিবার প্রদেশ কংগ্রেস নেতা অমিতাভ চক্রবর্তী এর কাছে ক্ষোভ উগরে দেন সাধারণ যাত্রী ও গ্রামবাসীরা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, জটিল রোগ হলে পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুক হাসপাতালে যাওয়ার এক মাত্র ভরসা জলপথে ভুটভুটি। কিন্তু নৌকাডুবির পর নৌক ভাড়া করে ওপারে যেতে হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার কংগ্রেস নেতা অমিতাভ বাবু এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে সাধারণ মানুষের অভিযোগ শোনেন। তারপর বলেন, কালীপূজার আগে ফেরি সার্ভিস চালু না হলে জেলা শাসক ও রাজ্য পরিবহন দফতরের দ্বারস্থ হবেন। অমিতাভ বাবু শুভেন্দু অধিকারীর সেই অবৈধ পারাপার নিয়ে বলেন, অবৈধ ভাবে নৌক চলাচল করছিল, সেই অনুমতি পূর্ব মেদিনীপুরের অমৃতবেড়িয়া গ্রামপঞ্চায়েত অনুমতি দেন।

তাদের বিরুদ্ধে শুভেন্দু বাবু কি আইনি ব্যবস্থা নিলেন? গ্রামবাসী শ্রী নিবাস গুড়িয়া জানান ফেরিঘাটে জলসাথী প্রকল্পের কথা সরকারের তরফ থেকে বলা হলেও, মায়াচর বা দণিপুরের ঘাটে কোনোদিন তাদের দেখা মেলেনি।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা