অবশেষে গুলিতে কাবু এলাকার ত্রাস!

নিজস্ব সংবাদদাতা : দুদিনের চেষ্টার পর শেষ পর্যন্ত ঘুমপাড়ানি গুলি করে কাবু করা হল এলাকায় দাপিয়ে বেড়ানো হনুমানটিকে। আপাতত তাকে গড়চুমুক প্রানী চিকিৎসা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে বলে বনদফতরের সুত্রে জানা গেছে। উলুবেড়িয়া বন দফতরের রেঞ্জ অফিসার উৎপল সরকার এদিন পুরো প্রক্রিয়ার শেষে জানান হনুমানটির বাঁহাতে আঘাতের পাশাপাশি তার একটি দাঁতও ভাঙা রয়েছে। তিনি আরো বলেন হাতে আঘাত থাকার জন্যই খুব সম্ভবত হনুমানটি ক্ষীপ্র হয়ে উঠেছিল।

উল্লেখ্য গত সাতদিন ধরে উলুবেড়িয়া থানা এলাকার জোড়াকলতলা, জামবেড়িয়া, মান্নাপাড়া এলাকায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছিল ওই হনুমানটি। তার কামড়ে আহত হন প্রায় জনা আটেক গ্রামবাসী। এরপর গ্রামবাসীদের দাবী মেনে নিয়ে হনুমানটি কে পাকড়াও করার জন্য পাঁচদিন আগে গ্রামে খাঁচা পাতে বন দফতরের লোকজন। কিন্তু পাতা খাঁচাতে ওই হনুমানটি ধরা না পড়ায় ফাঁফরে পরে বন কর্মীরা । ইতিমধ্যে ওই হনুমানটির কামড়ে আরো দুজন গ্রামবাসী আহত হন।

হনুমানের আতঙ্কে নাজেহাল হয়ে ওঠেন স্হানীয় পড়ুয়া থেকে শুরু করে বাসিন্দারা। এরপর উলুবেড়িয়া বনদফতরের পক্ষ থেকে ঠিক করা হয় ঘুমপাড়ানি গুলিতেই কাবু করা হবে হনুমানটিকে। সেই মতো বৃহস্পতিবার বন দফতরের টিম এলাকায় আসে ।কিন্তু সারাদিন তন্নতন্ন করে খুঁজেও তার দেখে মেলেনি। অবশেষে শুক্রবার দুপুরে বন কর্মীরা দুপুর একটা নাগাদ মান্নাপাড়ার কাছে একটি খিরিস গাছে হনুমানটি কে দেখতে পান। এরপরই হনুমানটি কে ঘুমপাড়ানি গুলিতে কাবু করা হয়।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা