মারা যাচ্ছে মাছ, দূষিত হয়ে গেছে হুগলি নদীর জল

নিজস্ব সংবাদদাতা : দূষিত হয়ে গেছে হুগলি নদীর জল। সেই কারণে ভেসে উঠছে বা মারা যাচ্ছে নদীর মাছ। গত চার পাঁচ দিন ধরে উলুবেড়িয়া ও তার আশপাশের এলাকায় হুগলী নদী তীরবর্তী এলাকায় এই দৃশ্য দেখা দেওয়ায় নদী দূষণের আশঙ্কায় আতঙ্কিত সাধারণ মানুষ। যদিও ইতিমধ্যে রাজ্য মৎস দফতরের উদ্যেগে নদীর জলের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। জানা গেছে গত বুধবার থেকে উলুবেড়িয়ার কালসাপা বাংলো , ১১ ফটক, কালীনগর,হীরাপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় নদীর পাড়ে ভেসে উঠছে চিংড়ি, ট্যাঙ্করা, পাবদা সহ বিভিন্ন ধরনের মাছ। স্থানীয় যুবক থেকে মহিলা এমনকি ছোট ছেলেমেয়েরা ও ছাঁকনি জাল নিয়ে মাছ ধরতে নেমে পড়েছে নদীতে।

যদিও ঠিক কি কারণে এই ঘটনা ঘটছে সেই সম্পর্কে কিছু জানেন না বলেই জানিয়েছেন নদী সংলগ্ন এলাকার লোকজন। অন্যদিকে নদীতে মাছ পাওয়া সম্পর্কে কাজিয়াখালির বাসিন্দা খোকন মন্ডল জানান গত কয়েকদিন ধরে নদীতে যে পরিমাণ মাছ পাওয়া যাচ্ছে তাতে আমার মনে হয় নদীর জল দূষিত হয়েছে। সেই কারণেই এই ধরনের ঘটনা ঘটছে। যদিও অনেকের মতে নদীতে মাছ ধরার জন্য অনেক সময় জলে বিষ দেওয়া হয়, সেই কারণেও এই ঘটনা ঘটতে পারে। এদিকে নদীর জল দূষণের খবরে আতঙ্কিত উলুবেড়িয়ার মানুষ। তাদের মতে যেহেতু নদীর জল পরিশোধন করে সরবরাহ করা হয় সেই কারণে একটা আতঙ্ক গ্রাস করেছে। যদিও উলুবেড়িয়া পুরসভার চেয়ারম্যান অভয় দাস জানান ইতিমধ্যে বিষয়টি রাজ্য মৎস দফতর ও দুষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদকে জানানো হয়েছে। প্রতিদিন জল সরবরাহ করার আগে ভালো করে পরীক্ষা করে তারপরেই তা সরবরাহ করা হচ্ছে। এদিকে নদীর জল দূষণের খবর পাওয়ার পর শনিবার রাজ্য মৎস দফতরের আধিকারিকরা উলুবেড়িয়ার বিভিন্ন নদীর ঘাট থেকে জলের নমুনা সংগ্রহ করেষ। তারা জানান কি কারণে মাছ মারা যাচ্ছে বা ভেসে উঠছে? তা এখনই বলা সম্ভব নয়। পাশাপাশি নদীর জল দূষিত হয়েছে কিনা সেটা পরীক্ষার পরেই জানা গেছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা