শিক্ষামূলক ভ্রমণে গিয়ে চটুল গানে নাচলেন হাওড়ার স্কুলের প্রধান শিক্ষক, শিক্ষিকারা, শোকজ

নিজস্ব সংবাদদাতা : ছাত্রদের নিয়ে শিক্ষামূলক ভ্রমণে গিয়ে চটুল হিন্দি গানে নাচলেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক, শিক্ষিকারা। নেট দুনিয়ায় মুহুর্তে ভাইরাল হতেই শোরগোল পড়েছে হাওড়ায়। জানা গেছে, গত ৩ রা আগস্ট বকখালিতে একাদশ শ্রেণীর ৬৫ জন ছাত্রকে নিয়ে শিক্ষামূলক ভ্রমণে গিয়েছিলেন হাওড়ার সাঁতরাগাছি কেদারনাথ ইন্সটিটিউশানের শিক্ষক-শিক্ষিকারা। স্কুলের প্রধান শিক্ষক, তিন শিক্ষিকা সহ মোট দশজন শিক্ষক এই শিক্ষামূলক ভ্রমণে গিয়েছিলেন। মূলত একাদশ শ্রেণীর বিজ্ঞান ও ভূগোলের ছাত্রদের নিয়েই ছিল এই শিক্ষামূলক ভ্রমণ। বাসে বকখালি যাওয়ার পথে শিক্ষক-শিক্ষিকারা বাসের মধ্যে ছাত্রদের সাথে চটুল হিন্দি গানে নাচেন বলে অভিযোগ। শুক্রবার সোশ্যাল মিডিয়ায় সামনে আসে সেই ভিডিও। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে বাসের মধ্যে শিক্ষক-শিক্ষিকারা হিন্দি গানের তালে ছাত্রদের সঙ্গে নিয়ে চটুল নাচ নাচ্ছেন। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন...

এমনকী সেই চটুল নাচে অংশ নিয়েছেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক স্বয়ং। এই ঘটনা সামনে আসতেই নিন্দায় সরব হয়েছেন জেলার শিক্ষামহল। সমালোচনায় সরব বিদ্যালয়ের একাংশের শিক্ষক, ছাত্র, অভিভাবক, প্রাক্তনী সহ বহু মানুষ। এই ঘটনা হাওড়া জেলা স্কুল পরিদর্শক অজয় কুমার পাল বলেন,”এই ঘটনার জন্য স্কুলের প্রধান শিক্ষককে শো-কজ করা হয়েছে। মৌখিকভাবে বিষয়টি তাঁর কাছ থেকে জানার পর তাঁকে লিখিত দিতে বলা হয়েছে। এছাড়া এ নিয়ে বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়েছে। ঘটনার সত্যতা প্রমাণিত হলে দোষীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।” ঘটনার কথা শুনেই এদিন স্কুলে ছুটে যান বহু প্রাক্তনী। স্কুলের এক প্রাক্তন ছাত্র অর্ধেন্দু লাহিড়ির কথায়, এ ধরনের ঘটনা ওই স্কুলে কোনোদিন ঘটেনি। ২০২৫ সালে স্কুলটি একশো বছরে পা দেবে। সেই ঐতিহ্যপূর্ণ স্কুলে এ ধরনের সংস্কৃতি কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না তাঁরা। এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ করা উচিত বলে জানান অর্ধেন্দুবাবু।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা