বর্ষার শুরুতেই হাওড়ার ৫৮ গেটে ইলিশের পসরা, কিনতে ভিড় জমাচ্ছেন উৎসুক জনতা

নিজস্ব সংবাদদাতা : মাছেভাতে বাঙালির পাতে যদি ইলিশ পড়ে তাহলে তো আর দেখতে নেই। বর্ষার ইলিশের অপেক্ষায় ফি-বছর দিনগোনে বাঙালি। ‘মাছের রাজা’র স্বাদ কেনা পেতে চায়।

বর্ষার শুরু হতে না হতেই গ্রামীণ হাওড়ার শ্যামপুরের ৫৮ গেটে দেখা মিলেছে ইলিশের। বিকেল হলেই ইলিশ ধরে ঘাটে ভিড়ছে ছোটো ছোটো নৌকা। তারপর ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় তারই পসরা সাজিয়ে বসছেন স্থানীয় মাছ ব্যবসায়ীরা।

আর তা কিনতেই উপচে পড়ছে ভিড়। দাম একটু চড়া হলেও অনেকেই ইলিশ নিয়েই বাড়ি ফিরছেন। ব্যবসায়ীরা জানাচ্ছেন, ১ কিলো সাইজের ইলিশের দাম প্রায় ১৮০০ – ২০০০ টাকা, ৫০০ – ৬০০ গ্রাম সাইজের দাম ৯০০ – ১০০০ টাকা আর ২৫০ – ৩০০ গ্রাম সাইজের ইলিশের দাম ৭০০ – ৮০০ টাকা।

৫৮ গেটে ইলিশের দেখা মিললেও গাদিয়াড়ায় এখনো খুববেশি ইলিশের দেখা মেলেনি। স্থানীয় মৎসজীবীরা জানাচ্ছেন,মূলত এই ইলিশটা ৫৮ গেট সংলগ্ন হুগলী নদী থেকে ধরা। গাদিয়াড়া ও ৫৮ গেটের বেশিরভাগ মৎসজীবিই ট্রলারে মাঝসমুদ্রে গেছেন ইলিশের খোঁজে।

সেই ইলিশ এখনো হাওড়ার বাজারে এসে পৌঁছায়নি। আগামী সপ্তাহ নাগাদ বাজারে সেই মাছ আমদানি হলে মধ্যবিত্তের নাগালে দাম আসতে পারে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। তবে লকডাউনের জেরে দীর্ঘদিন মাছধরা বন্ধ থাকায় খোকা ইলিশের তুলনায় পরিণত ইলিশের সংখ্যাটা বাজারে বেশি হওয়ায় খুশি ক্রেতারা।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা