আষাঢ়েও ইলিশের দেখা নেই, হতাশায় দিন কাটছে গ্রামীণ হাওড়ার মৎসজীবীদের

নিজস্ব সংবাদদাতা : বর্ষার ইলিশের অপেক্ষায় ফি-বছর দিনগোনে খাদ্যরসিক বাঙালি। দীর্ঘদিন সমুদ্রে মাছ ধরা বন্ধ থাকায় ও দূষণের পরিমাণ একধাক্কায় অনেকটা কমে যাওয়ায় অনেকেই এবার অঢেল ইলিশের আশা করেছিলেন। তবে প্রকৃতির নিয়মে বর্ষা শুরু হলেও এখনো গ্রামীণ হাওড়ার হুগলী ও রূপনারায়ণে সেভাবে ইলিশের দেখা মেলেনি। হাতেগোনা দু’একটা ইলিশ পড়লেও তা চড়া দামে বাজারে বিক্রি হচ্ছে।যার ফলে মধ্যবিত্তের ইলিশ-আশা অধরাই থেকে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গ্রামীণ হাওড়ার শ্যামপুরের দু’টি ব্লক ও উলুবেড়িয়ার কয়েক হাজার মৎসজীবী ইলিশের অপেক্ষায় বছরভর দিন গোনেন। কিন্তু, আষাঢ়েও গাদিয়াড়া, ৫৮ গেট, শ্যামপুরের বিভিন্ন এলাকায় জালে পড়ছে না ‘রূপোলি শস্য’। যার জেরে হতাশ মৎসজীবীরা। একদিকে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি অন্যদিকে জালশূন্য ইলিশ —এই দ্বৈত জাঁতাকালে সংশয়ের সম্মুখীন হয়েছে কয়েক হাজার মৎসজীবী পরিবার। মৎসজীবীদের কথায়, “ভাদ্র মাসে নদীতে মাছ বাড়ে।” এখন ভাদ্রের ইলিশের অপেক্ষাতেই দিন গুনছেন গ্রামীণ হাওড়ার কয়েক হাজার মৎসজীবী।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা