রাজাপুর থানা এলাকার দশবাঘাতে ভয়াবহ আগুন, ভষ্মিভূত দুটি বাড়ি

নিজস্ব সংবাদদাতা : ভয়াবহ আগুনে ভষ্মিভূত দুটি বাড়ি ।বুধবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে রাজাপুর থানা এলাকার দশবাঘা মধ্যমপাড়ায়। প্রাণহানির ঘটনা না ঘটলেও আগুন লেগে দুটি বাড়ি ভস্মীভূত হয়ে যাবার ফলে বাড়ির সমস্ত আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায় । আগুন লাগার পর স্হানীয় লোকজন প্রাথমিক ভাবে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে।

পরে দমকলের একটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আধঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। জানা গেছে বুধবার রাতে খলিশানী দশবাঘা মধ্যমপাড়ার বাসিন্দা সেখ মোস্তাফার বাড়িতে আগুন লাগে। পরক্ষনেই সেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে পাশেই বসবাসকারী তার ভাই সেখ রহমতের বাড়িতে । সে সময় মোস্তাফার বাড়িতে ছিলেন শুধুমাত্র তার পুত্রবধূ ।

আগুন দেখে আতঙ্কে বাড়ির বাইরে ছুটে বেরিয়ে আসেন তিনি। তার চিৎকার চেঁচামেচিতে জড়ো হয়ে যায় এলাকার লোকজন। ততক্ষণে আগুন টালির চালের মাটির দুটি বাড়িরকেই গ্রাস করে ফেলেছে। এরপর স্হানীয় যুবকরা তৎপরতার সাথে বালতি করে পুকুর থেকে জল তুলে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজে হাত লাগায়।

স্হানীয় পঞ্চায়েত সদস্য  সেখ জিয়াউর বলেন এরপর আমরা দমকল ও থানায় খবর দিই। তিনি আরো বলেন আগুন সে ভাবে দুটি বাড়িকে গ্রাস করেছিল তাতে করে বাড়ির কোনো আসবাবপত্র সরানো যায়নি। সেখ মোস্তাফা বলেন আমি তখন বাড়িতে ছিলাম না মেয়েদের নিয়ে বাইরে কাজে গিয়েছিলাম । তিনি বলেন বাড়িতে কিছু টাকা পয়সা ও অল্প কিছু সোনার গহনা ছিল সব পুড়ে গেছে। একই অবস্থার কথা জানালেন সেখ রহমতও।

সেখ মোস্তাফা গ্রামেই একটা ছোট্ট দোকান চালান।তার ভাই সেখ রহমত ঝালাইয়ের কাজ করেন। নিন্মবিত্ত পরিবার দুটি। আগুনে তাদের বাড়ি দুটি পুড়ে যাওয়ার কারনে দিশেহারা অবস্থা। বাসস্থান হারিয়ে এখন তারা আশ্রয় নিয়েছে প্রতিবেশীদের বাড়িতে। এদিন আগুন লাগার জেরে সেখ বন্দেজের বাড়িও আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দমকলের প্রাথমিক অনুমান সর্টশার্কিট থেকে আগুন লেগেছে ।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা