পাঁচলায় বাড়ি থেকে লুঠ কয়েক লক্ষ টাকার গহনা ও নগদ টাকা, চাঞ্চল্য

রাকেশ মাইতি : ঘরের তালা ভেঙে কয়েক লক্ষ টাকার গহনা ও নগদ টাকা চুরি যাওয়ার ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল গ্রামীণ হাওড়ার পাঁচলার গঙ্গাধরপুর ধর্মতলা এলাকায়। সূত্রের খবর, গঙ্গাধরপুর ধর্মতলার বাসিন্দা প্রসেনজিৎ পন্ডিত অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীয়ের চিকিৎসার জন্য স্ত্রীকে নিয়ে গত দুদিন শ্বশুরবাড়িতে ছিলেন। প্রসেনজিতে বাড়িতে ছিলেন তাঁর মা আল্পনা দেবী, কাকা ও কাকিমা।

জানা গেছে, সোমবার রাত ৯ টা নাগাদ নীচের ঘরে তালা দিয়ে উপরের ঘরে চলে যান আলপনা দেবী। সকালে উঠে বাড়ির বাইরের দরজার তালা খুলতে গিয়ে চাবি খুঁজে না পাওয়ায় সন্দেহ হয়। তারপরই তিনি দেখেন বাইরের দরজার তালা ভাঙা ও নিচের ঘরের দরজা খোলা। এমনকি পাশের যে ঘরে প্রসেনজিতের কাকা থাকেন সেই ঘরের শিকল বাইরে থেকে তুলে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আল্পনা দেবী তালা ভাঙা ঘরে ঢুকে দেখেন সবকিছু অগোছালো। আলমারীর দরজা খোলা। পড়ে রয়েছে গহনার খোলা বাক্স। এরপরই তিনি ছেলেকে খবর দেন। প্রসেনজিৎ পন্ডিত জানান, “স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য কুড়ি হাজার টাকা ব্যাঙ্ক থেকে তুলে রাখাছিল। তার পাশাপাশি, যাবতীয় সোনা-রুপোর সামগ্রী এবং সংসার খরচ বাবদ কয়েক হাজার টাকাও তার সাথে রাখা ছিল।”

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা