হাওড়ার গ্রামে মাত্র ৫ টাকায় রোগী দেখেন এমবিবিএস চিকিৎসক, মেলে ওষুধও, রোগীদের ভিড়

নিজস্ব সংবাদদাতা : মাত্র পাঁচ টাকা দিয়ে নাম লেখালেই মিলবে ডাক্তার বাবুকে দেখানোর সুযোগ। শুধু তাই নয়, এতেই মিলবে ওষুধ। দীর্ঘ প্রায় একবছর ধরে এভাবেই সমাজের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের মানুষকে পরিষেবা দিচ্ছেন বিশিষ্ট চিকিৎসক সৌগত বিশ্বাস। জানা গেছে, সৌগত বাবু একজন এমবিবিএস চিকিৎসক। তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ডিজিএম(মেডিসিন), ডিএনবি(মেডিসিন) সহ একাধিক ডিগ্রি। তিনিই মাত্র পাঁচ টাকার বিনিময়ে প্রত্যেক বুধবার সন্ধ্যায় রোগী দেখেন হাওড়ার বেগড়ী হরিসভা শিবশক্তি সংঘ প্রাঙ্গণে। ডাক্তার বাবুকে দেখাতে রাণীহাটি, জয়নগর, ধুলাগড় সহ ১২-১৫ কিলোমিটার দূরের গ্রাম থেকেও বহু মানুষ আসেন। পাঁচ টাকার বিনিময়ে নাম নথিভুক্ত করালেই ডাক্তার দেখানোর সুযোগ মেলে। আবার ডাক্তার বাবুর প্রেসক্রিপশনেই মেলে ওষুধ। প্রত্যেক বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা নাগাদ ডাক্তার বাবু রোগী দেখা শুরু করেন। যতক্ষণ অব্ধি রোগী থাকে ততক্ষণ অব্ধি সৌগত বাবু তাঁদের দেখেন। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন...

কোনো দিন ৪০ জন আবার কোনোদিন ৬০ জন বা তারও বেশি রোগী জ্বর, সর্দি, কাশি, সুগার, প্রেসার জনিত কিংবা হার্টের সমস্যা, পেটের অসুখ বিভিন্ন রোগ নিয়ে ডাক্তারবাবুর কাছে আসেন। নাম লেখানো থেকে ওষুধ দেওয়া, সমস্ত কাজকর্মই পরিচালনা করে বেগড়ী হরিসেবা শিবশক্তি সংঘের সদস্যরা। সংঘের সদস্য রাজ ঘোষ, দেবশঙ্কর ঘোষরা জানান, যতদিন যাচ্ছে ততই এখানে রোগীর সংখ্যা বেড়ে চলেছে। তাঁরা জানান, কোভিড পরিস্থিতিতে বিভিন্নভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিল এই সংগঠন। সেইসময় বহু মানুষ অর্থাভাবে ঠিকমতো চিকিৎসা করাতেও পারছিলনা। রাজ ঘোষ, দেবশঙ্কর ঘোষরা বিষয়টি বিশিষ্ট চিকিৎসক সৌগত বিশ্বাসকে জানালে তিনি প্রত্যেক বুধবার বেগড়ীতে এসে রোগী দেখা শুরু করেন। সংগঠনের সদস্যরা জানান, রোগীদের কাছ থেকে পাঁচ টাকা নেওয়া হয়। তবে সেই টাকা জমিয়ে রেখে ওষুধ কেনা হয়, সেই ওষুধ রোগীদের দেওয়া হয়। পাঁচ টাকার বিনিময়ে ডাক্তার বাবুকে দেখাতে এখন বুধবার সন্ধ্যায় কার্যত মানুষের ভিড় জমে বেগড়ী হরিসেবা শিবশক্তি সংঘ প্রাঙ্গণে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা