হাওড়ার শ্যামপুরে মিলের বিষাক্ত জল মিশছে খালে, বিপাকে এলাকার লোকজন

নিজস্ব সংবাদদাতা : হাওড়া জেলার শ্যামপুর থানার অনন্তপুর অমরনাথ সিদ্ধেশ্বরী ডাইং মিল। অভিযোগ প্রতিদিন ৬-৭ টা পাম্প এর সাহায্যে প্রায় গ্যালন গ্যালন ভূগর্ভস্থ জল তুলে সেই জলে রং মিশিয়ে কাপড় রং করা হয়। বর্জ্য রং পাইপ ও ড্রেনের সাহায্য শোধন না করেই রূপনারায়ন নদী সংলগ্ন খালে ফেলা হয়। সেই কেমিক্যাল বিষাক্ত জল খাল হয়ে পুকুর, চাষের জমির ক্ষতি করে। এই রঙের প্রভাবে এলাকায় চর্ম রোগের প্রাদুর্ভাব বাড়ছে। দূষিত হচ্ছে নদী। তারপরেও উদাসীন প্রশাসন।

স্থানীয় কয়েকজন চাষী, ও মাছ চাষী দের অভিযোগ ধান চাষে ভালো ফলন পাওয়া যাচ্ছেনা মাটিতে অতিরিক্ত বিষাক্ত ক্যামিক্যাল মিশে যাওয়ার কারণে। মাছ চাষ করা হলেও মাছ বাড়তে না বাড়তেই রোগ ভোগে মারা যায়। এলাকার পানীয় জলের কল গুলিও বিকল হয়ে পড়েছে। এলাকায় জলসঙ্কটের সম্মুখীন এলাকাবাসী।এলাকা বাসীদের অভিযোগ তারা মিল বন্ধ হতে দিতে চান না। কারণ অনেকেই মিলটির উপর নির্ভরশীল হয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন। তাদের মতে ভূগর্ভের জল অপচয় না করে নদীর জল শোধন করে কাপড় রং করে দূষিত বর্জ্য রং আবার শোধন করে নদীতে ফেলা। এলাকাবাসীদের আরও অভিযোগ বারবার প্রশাসনের দারস্থ হলেও সমস্যার কোনো সুরাহা হয়নি।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা