অষ্টমীর সন্ধ্যায় গ্রামীণ হাওড়ার বিভিন্ন জায়গায় মানুষের ঢল

নিজস্ব সংবাদদাতা : উৎসবপ্রিয় বাঙালি উৎসবে মাতবে না তা কি হয়! ষষ্ঠী, সপ্তমীতে গ্রামীণ হাওড়ার বিভিন্ন মন্ডপে, রাস্তায় সেভাবে ভিড় দেখা না গেলেও অষ্টমীর সন্ধ্যায় মানুষের ঢল নেমেছে। পরিবার, বন্ধুবান্ধবকে নিয়ে বহু মানুষই এদিন সন্ধ্যায় বাগনান, উলুবেড়িয়া, আমতার পাশাপাশি বিভিন্ন গ্রামেও প্রতিমা দর্শনে বেড়িয়েছেন।

কিছু মানুষের মুখে মাস্কের দেখা মিললেও অনেকের মুখে মাস্ক নেই। এব্যাপারে অবশ্য বেশ সচেতন পুজো কমিটিগুলি। শুধু মাইক প্রচার করে, স্যানিটাইজিং টানেল বসিয়ে কিমবা ফ্লেক্স লাগিয়ে ক্ষান্ত হয়নি পুজো কমিটি গুলি। মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে মন্ডপে যেমন প্রবেশ নিষেধ করেছে পুজো কমিটিগুলি তেমনই মাস্কবিহীন মানুষকে মাস্ক তুলে দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবকরা।

পুজো দেখতে বেরোনা মানুষের বক্তব্য, দীর্ঘদিন বাড়িতে মহিলা – কচিকাচারা বসে বিরক্ত হয়ে যাচ্ছে। তাই সবরকম সুরক্ষা বিধি মেনেই আশপাশে কিছুক্ষণের জন্য ঘুরতে বেরানো। আবার অনেকের বক্তব্য, এবার তো আর কোলকাতায় ঠাকুর দেখতে যাওয়া সম্ভব হচ্ছেনা তাই স্থানীয় এলাকাতেই ঘুরে বেড়ানো। অষ্টমীর রাত বাড়ার সাথে সাথে মানুষের ভিড় বাড়ে নাকি সেটাই এখন দেখার।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা