রমজান মাসে অগ্নিমূল্য ফলের বাজার, চিন্তার ভাঁজ ক্রেতা থেকে ব্যাবসায়ী সকলের কপালে

নিজস্ব সংবাদদাতা : রবিবার থেকে রমজান মাসের রোজা শুরু হয়েছে। একমাস ধরে এই রোজা চলবে। এই মাসে গোটা বিশ্বের ধর্মপ্রাণ মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ ৩০ দিন সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত নিরম্বু উপবাস অর্থাৎ রোজা রেখে থাকেন। সন্ধেই সূর্যাস্তের পর খাদ্যগ্রহন। সন্ধ্যায় মগরিবের আজানের ধ্বনি শুনে রোজদাররা হরেক রকমের ফল সহকারে ইফতার (রোজাভঙ্গ) করে থাকেন। তবে এই  সব ফলের দাম আকাশ ছোঁয়া। যার ফলে রোজদার ছাড়াও সমস্যায় পড়েছেন সাধারন মানুষ। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন…

গ্রামীণ হাওড়ার আমতা উলুবেড়িয়া, বাগনান, শ্যামপুর সহ বিভিন্ন ফলের বাজারের দোকানগুলোতে হরেক রকমের ফল সাজানো রয়েছে। খরিদ্দারের দেখা নেই বিক্রি বাটাও না হয়ে সমস্যায় পড়ছেন ফল ব্যবসায়ীরাও। আবার অনেকে ফল কিনতে আসছেন। তাদের মধ্যে কেউ কেউ ফল  কিনছেন  আবার অনেক কম পরিমান ফল কিনছেন। আবার কেউ কেউ ফলের দাম দেখে চলে যাচ্ছেন।

উলুবেড়িয়ার ফল ব্যবসায়ী সেখ আয়ুব আলী দীর্ঘদিন ধরে ফলের ব্যবসার সাথে যুক্ত। রোজার সময় ফলের ব্যবসা ভালো করে থাকেন। অন্যান্য বছরে  রোজার প্রথমদিনে ফলের বাজার যেভাবে হয়ে থাকে তার তুলনায় এই বছরে কিছুই নেই। সাহিন খান নামে এক যুবক বলেন প্রতি বছর যে ফল কিনতাম তার তুলনায় কম কিনতে হচ্ছে । সাহিনের অভিযোগ করেন, পেট্রোপন্য দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি হচ্ছে। এছাড়া কিছু মজুমদাররা দাম বৃদ্ধি করছেন বলে এই রকম ভাবে দাম বাড়ছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা