আমতার গ্রামে ‘মাস্ক ভেন্ডিং মেশিন’, ৫ টাকা দিলেই মিলছে দু’টি মাস্ক

নিজস্ব প্রতিবেদক : অক্সিজেন সিলিন্ডার, ফ্লোমিটার নিয়ে কালোবাজারির মাঝে মাস্কও চড়া দামে বিক্রি করছেন কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। অন্যদিকে, মাস্ক নিত্যব্যবহার্য গুরুত্বপূর্ণ সামগ্রী হয়ে উঠেছে। ৫ টাকার মাস্ক ১০ টাকা কিমবা তারও বেশি দামে কিনতে গিয়ে কার্যত হিমশিম খেতে হচ্ছে বহু দিন আনা দিন খাওয়া মানুষকে।

এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর লক্ষ্যে অভিনব উদ্যোগ নিল আমতার অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’। আমতার নবনির্বাচিত বিধায়ক সুকান্ত কুমার পালের উদ্যোগে ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’-এর ব্যবস্থাপনায় আমতা-১ ব্লকের উদং-ফতেপুর বাসস্ট্যান্ডে একটি মাস্ক ভেন্ডিং মেশিন বসানো হয়েছে।

জানা গেছে, মেশিনে একটি পাঁচ টাকার কয়েন দিলেই বেরিয়ে আসবে দু’টি সার্জিক্যাল মাস্ক। শুক্রবার থেকেই সাধারণ মানুষের জন্য মেশিনটি খুলে দেওয়া হয়েছে। সংস্থা সূত্রে জানা গেছে, সকাল থেকে রাত অব্ধি পরিষেবা মিলবে। সংগঠনের সভাপতি অরুণ খাঁ বলেন, আমতা কেন্দ্রের বিধায়ক সুকান্ত কুমার পাল গত দু’দিন আগে আমাদের সংস্থাকে উপহার স্বরূপ মেশিনটি তুলে দেন।

এর মাধ্যমে গ্রামাঞ্চলের মানুষকে খুব স্বল্পমূল্যে মাস্ক পৌঁছে দেওয়াই আমাদের লক্ষ্য। প্রথমদিনই শতাধিক মানুষ এই ভেন্ডিং মেশিন থেকে মাস্ক সংগ্রহ করেন বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, আমতার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’ প্রথমদিন থেকে করোনা মোকাবিলায় বিভিন্নভাবে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। সচেতনতার প্রচার করা, ২৪ ঘন্টার হেল্পলাইন নাম্বার চালু করে কোভিড আক্রান্তদের পাশে দাঁড়ানো, খাবার, অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দেওয়ার মতো বহু কাজ করছেন আমতার এই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা। এবার তাদের নতুন সংযোজন মাস্ক ভেন্ডিং মেশিন।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা