উলুবেড়িয়ায় বিজেপি পার্টি অফিস পরিদর্শনে সুকান্ত মজুমদার, সুর চড়ালেন শাসকদলের বিরুদ্ধে

নিজস্ব সংবাদদাতা : বিজেপি নেত্রী নুপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্যের প্রতিবাদে কিছুদিন আগে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল গ্রামীণ হাওড়ার উলুবেড়িয়া, পাঁচলা সহ একাধিক এলাকা। বিক্ষোভ প্রদর্শনের সময়ে উলুবেড়িয়ার মনসাতলায় হাওড়া গ্রামীণ জেলা বিজেপির কার্যালয়ে ভাঙচুর চালানো হয় বলে অভিযোগ। শনিবার উলুবেড়িয়ার মনসাতলায় বিজেপির দলীয় কার্যালয় পরিদর্শনে এলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। পাশাপাশি তিনি এদিন জেলা কার্যালয়ের সামনে দলীয় পতাকা উত্তোলন করার পর শহীদ বেদী দুধ গঙ্গাজল দিয়ে শুদ্ধিকরণ করেন। বিজেপির কার্যালযের বিভিন্ন জায়গায় গঙ্গাজল ছিটিয়ে শুদ্ধিকরন করেন। এই ভাঙচুরের ঘটনার সঙ্গে তৃণমূল, ভারত বিরোধী সংস্থা, উগ্রপন্থী সংস্থা জড়িত রয়েছেন বলে অভিযোগ করেন বালুরঘাটের সাংসদ। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন...

এদিন সুকান্ত মজুমদার বলেন, এটা পুরোপুরি সাম্প্রদায়িক ঘটনা। মুখ্যমন্ত্রী ইচ্ছে করে কোনো পদক্ষেপ নেননি। তিনি আরও বলেন, প্রতিবছর ১০ ই জুন হাওড়া জেলা বিজেপির পক্ষ থেকে কালা দিবস পালন করা হবে। ধর্মীয় উন্মাদনাকে ভোট ব্যাঙ্কের স্বার্থে লেলিয়ে দিচ্ছে শাসক দল। যদিও আগামীদিনে এই শক্তি বুমেরাং হয়ে ফিরে আসবে বলেও মনে করেন সুকান্ত। তিনি পুলিশের ভূমিকার তীব্র নিন্দা করেন। সুকান্ত মজুমদার বলেন, রাজ্য পুলিশের কোনো ক্ষমতা নেই। সেদিন পুলিশ দাঁড়িয়ে দাঁড়িযে রাস্তা অবরোধ, ভাঙচুর দেখেছে। সব পুলিশের সামনে হয়েছে। তিনি এদিন দলের মহিলা কর্মীদের পুলিশকে একগোছা চুড়ি উপহার দেওয়ার কথা বলেন। তার মত লোকের চোখে ধূলো দিতেই হাওড়া গ্রামীণের পুলিশ সুপারকে সরানো হয়েছে। আসলে তাকে প্রমোশন দিয়ে কলকাতায় পাঠানো হয়েছে। ভাঙচুর হওয়া পার্টি অফিস আগের থেকে আরোও সুন্দর করা হবে বলেও তিনি জানান।

বিজেপি পার্টি অফিস ভাঙচুরের ঘটনায় তৃণমূলের জড়িত থাকার বিষয়টি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন তৃণমূলের হাওড়া গ্রামীণ এলাকার কো-অর্ডিনেটর সমীর পাঁজা। তিনি বলেন, হাওড়ায় বিজেপির আর কিছু নেই। তাই বিজেপিরই একটা অংশ নিজেরাই নিজেদের পার্টি অফিস ভেঙে বাংলাকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করেছে। পাশাপাশি তিনি নুপুর শর্মার মন্তব্যকে কুরুচিকর বলেও মন্তব্য করেছেন। এছাড়া তিনি প্রতিবাদের নামে ভাঙচুরেরও নিন্দা করেছেন। এদিন বিজেপির রাজ্য সভাপতির সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির হাওড়া গ্রামীণ জেলা সভাপতি অরুন উদয় পাল চৌধুরী, রাজ্য বিজেপির নেতা উমেশ রাই, মনোজ পান্ডে, অমিত সামন্ত, প্রত্যুষ মন্ডল সহ অন্যান্যরা।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা