করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন ৯৫ বছরের বৃদ্ধ, উলুবেড়িয়ার সঞ্জীবনের মুকুটে নয়া পালক

নিজস্ব সংবাদদাতা : সারা বিশ্ব জুড়ে করোনার দাপট অব্যাহত। দেশে লকডাউন উঠে আনলক পর্ব শুরু হলেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে।

তবে অন্ধকারের মাঝেও আলো জ্বালাচ্ছে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরলস লড়াই। ক্রমে সুস্থ হয়ে উঠছেন বহু করোনা আক্রান্ত রোগী। সেই লড়াইয়ের অন্যতম অংশীদার গ্রামীণ হাওড়ার সঞ্জীবন হাসপাতাল।

হাওড়ার এই বেসরকারি হাসপাতালে করোনা হাসপাতাল হিসাবে জেলার করোনা রোগীদের চিকিৎসা চলছে। ইতিমধ্যেই সেখান থেকে প্রায় পাঁচশ রোগী করোনাকে জয় করে বাড়ি ফিরেছেন। এবার সঞ্জীবনের মুকুটে নয়া পালক।

৯৫ বছরের বৃদ্ধকে করোনা থেকে সুস্থ করে বাড়ি ফেরাল উলুবেড়িয়ার এই হাসপাতাল। সূত্রের খবর, গত ২১ শে জুন করোনা সংক্রমণ নিয়ে হাওড়ার সালকিয়ার বাসিন্দা গোবিন্দ হালদার ভর্তি হন ফুলেশ্বরের এই হাসপাতালে।

সঞ্জীবনের চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রচেষ্টায় ৯৫ বছরের গোবিন্দ বাবু দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন। আজ তাঁকে করতালি দিয়ে ও গান গেয়ে হাসপাতাল থেকে বিদায় জানান হাসপাতালের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা।

সঞ্জীবন হাসপাতালের ডিরেক্টর চিকিৎসক শুভাশীষ মিত্র বলেন, “ডক্টরস ডে’তে ৯৫ বছরের প্রবীন নাগরিক করোনা মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরছেন। এটা আমাদের হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীদের কাছে আনন্দ ও গর্বের বিষয়। তিন মাস আগে আমরা করোনা যুদ্ধে সামিল হয়েছিলাম।”

তিনি আরও বলেন, “এই প্রবীন ব্যক্তি ৫০০ তম রোগী যিনি এখনো পর্যন্ত এই এই হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন।” পাশাপাশি, এদিন ১১ জন পুলিশ কর্মী করোনাকে জয় করে বাড়ি ফেরেন। চিকিৎসকরা তাঁদের ১৫ দিনের হোম কোয়ারেনটাইন থাকার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা