প্রতিশ্রুতিই সার! অন্ধকারেই বোয়ালিয়া ব্রিজ

নিজস্ব সংবাদদাতা : গ্রামীণ হাওড়ার শ্যামপুরের দেওয়ানতলা ও উলুবেড়িয়ার বোয়ালিয়ার বুক চিরে চলে গিয়েছে দামোদর নদী। প্রত্যেকদিন দেওয়ানতলায় নদী পেরিয়ে উলুবেড়িয়া শহরে বা কোলকাতায় যান শ্যামপুরের বেশ কয়েকটি অঞ্চলের কয়েক হাজার মানুষ। তবে নদী পারাপারের ভরসা একমাত্র ইঞ্জিনচালিত নৌকা। মানুষ, কিমবা সাইকেল বা বাইক — সবার একটাই ভরসা নৌকা। এই পথে দীর্ঘদিন ধরে পাকা সেতুর দাবি জানিয়ে আসছেন শ্যামপুর-২ ব্লকের আমড়দহ, ঘুঘুবেশিয়া, সীতাপুর, দেওয়ানতলা সহ বিস্তীর্ণ অঞ্চলের বহু মানুষ। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন…

অভিযোগ, বিগত বিধানসভা নির্বাচনের সময় এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি তথা দামোদরের উপর দেওয়ানতলা থেকে বোয়ালিয়া অব্ধি পাকা সেতু তৈরির প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বিধানসভা ভোটের পর একবছর কেটে গেলেও এবিষয়ে কোনো উদ্যোগই নেয়নি প্রশাসন, অন্তত এমনটাই অভিযোগ স্থানীয় মানুষের। আমড়দহ এলাকার এক যুবকের কথায়, আমরা ভীষণ কষ্টে আছি। প্রাণ হাতে নিয়ে নিত্যদিন নদী পারাপার করতে হয়। রাত দশটার পর আর নৌকাও মেলেনা। চরম সমস্যার মধ্য দিয়ে এই এলাকার মানুষ চলেছি। তাঁর অভিযোগ, বিগত বিধানসভা নির্বাচনের সময় আমরা ভীষণ আশায় বুক বেঁধেছিলাম। কিন্তু বছর ঘুরে গেলেও কোনো উচ্যবাচ্যাই নেই।

এলাকার এক স্কুল শিক্ষকের কথায়, বোয়ালিয়া ব্রিজ তৈরি হলে এই এলাকার সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন ঘটবে। এই অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষ যেমন কাজের জন্য সহজে উলুবেড়িয়া যেতে পারবেন তেমনই রোগীকে উলুবেড়িয়া নিয়ে যেতেও সুবিধা। পাশাপাশি, ব্রিজ তৈরি হলে এলাকার পড়ুয়া সমাজ ভীষণভাবে উপকৃত। এখন কবে প্রশাসনের টনক নড়ে কিমবা প্রতিশ্রুতি পূরণে এগিয়ে আসেন জনপ্রতিনিধিরা সেদিকেই তাকিয়ে কয়েক হাজার মানুষ।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা