চলে গেলেন গরীবের ভগবান সুবীর ডাক্তার, আমতা – উদয়নারাপুরের বিস্তীর্ণ এলাকায় শোকের ছায়া

নিজস্ব সংবাদদাতা : ত্যাগ, সেবা আর কর্মের মধ্য দিয়েই গ্রামীণ হাওড়ার অগণিত মানুষের মাঝে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন। পরিচিতি পেয়েছিলেন ‘সুবীর ডাক্তার’ হিসেবেই।

দীর্ঘদিন ধরে স্বল্পমূল্যে প্রত্যন্ত গ্রামের প্রান্তিক মানুষের চিকিৎসা কিমবা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা দিয়ে অগণিত অসহায় মানুষের পাশে ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন উদয়নারায়ণপুর থানার বড়দা গ্রামের এই মহান চিকিৎসক। গতকাল ভোর ৪ টে নাগাদ ৬৫ বছর বয়সে পরলোক গমন করলেন চিকিৎসক সুবীর কান্তি সিংহ।

জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরেই তিনি অসুস্থ ছিলেন। কোলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে নিয়মিত ডায়ালিসিস করা হত। উল্লেখ্য, হাওড়া ও হুগলীর বিস্তীর্ণ অঞ্চলের মানুষকে খুব স্বল্পব্যয়ে চিকিৎসা পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে নিজের গ্রামের বুকে গড়ে তুলেছিলেন স্নেহলতা নার্সি হোম। তাঁর নার্সিংহোমে দুঃস্থ রোগীদের জন্য বেশ কিছু বিনামূল্যের বেডের ব্যবস্থাও আছে।

এর পাশাপাশি, পশুপ্রেমী কিমবা সংস্কৃতি – ক্রীড়াপ্রেমী হিসাবেও স্থানীয় অঞ্চলে সুবীর বাবুর সুখ্যাতি রয়েছে। ভোরের আলো ফোটার সাথে সাথেই প্রিয় ডাক্তারবাবুর মৃত্যু সংবাদ ছড়িয়ে পড়ে আমতা ও উদয়নারায়ণপুরের বিভিন্ন গ্রামে। লকডাউনের মাঝেও প্রিয় ডাক্তারবাবুকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে হাজির হয়েছিলেন বহু মানুষ।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা