উলুবেড়িয়ার বানীবন পঞ্চায়েত দখল করল তৃণমূল

নিজস্ব সংবাদদাতা : বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর থেকেই বাংলার বিভিন্ন প্রান্তের মতো গ্রামীণ হাওড়াতেও একের পর পঞ্চায়েত হাতছাড়া হয়েছে বিজেপির। আবারও বিজেপি পরিচালিত একটি গ্রাম পঞ্চায়েতের দখল নিল তৃণমূল। কিছুদিন আগেই উলুবেড়িয়া-২ ব্লকের বিজেপি পরিচালিত বানীবন গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ডের বিরুদ্ধে অনাস্থা এনেছিল তৃণমূল কংগ্রেস সদস্যরা। সেই অনাস্থা ভোটেও জয়লাভ করে তৃণমূল। মঙ্গলবার বানীবন পঞ্চায়েতের প্রধান নির্বাচিত হলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সরিফা বেগম। মঙ্গলবার ব্লক প্রশাসনের আধিকারিকদের উপস্থিতিতে বানীবন পঞ্চায়েত কার্যালয়ে প্রধান নির্বাচিত হয়। প্রধান নির্বাচনে তৃণমূল ১৫ টি, বিজেপি ৯ টি ভোট পায়। এরপরই উল্লাসে ফেটে পড়েন বানীবন অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসের তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন…

এদিন প্রধান নির্বাচন উপলক্ষে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় বিধায়ক নির্মল মাজি, উলুবেড়িয়া-২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সেখ ইলিয়াস সহ অন্যান্যরা। যদিও এবিষয়ে উলুবেড়িয়া উত্তর বিধানসভা কেন্দ্র তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তপন চক্রবর্তীর বক্তব্যে বিতর্কের দানা বেঁধেছে। তাঁর অভিযোগ,”আমায় সম্পূর্ণ অন্ধকারে রেখে প্রধান নির্বাচন করা হয়েছে। আমি এবিষয়ে কিছুই জানিনা।” তাঁর আরও অভিযোগ, বিধায়ক তাঁর ইচ্ছেমতো এক মহিলাকে প্রধান করতে চেয়েছিলেন। যদিও স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের চাপের কাছে তিনি নিজের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়েছেন এবং সরিফা বেগমকে প্রধান করেছেন।”

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা