উলুবেড়িয়ায় কারখানা থেকে ছড়াচ্ছে ‘বিষাক্ত’ ধোঁয়া, চলছে জলদূষণ, প্রতিবাদে পথে নামল পরিবেশপ্রমী সংগঠন

নিজস্ব সংবাদদাতা : বেআইনি উপায়ে ধোঁয়া ছাড়ার মাধ্যমে বায়ুদূষণ করা হচ্ছে, চলছে দূষণ। আর তারই সমস্যায় জেরবার একের পর এক গ্রামের হাজারো মানুষ। এবার তারই বিরুদ্ধে প্রতিবাদে নামল উলুবেড়িয়া থানার মাধবপুর পরিবেশ চেতনা সমিতি নামক একটি পরিবেশপ্রেমী সংগঠন। রবিবার সকালে সংগঠনটির তরফে দামোদর ও পরিবেশ দূষণ(পাইপ কারখানাকৃত) রোধে মানববন্ধন পদযাত্রা ও গণস্বাক্ষর সংগ্রহের আয়োজন করা হয়েছিল। জানা গেছে, উলুবেড়িয়া থানার চন্ডীপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মাধবপুর গ্রামে ১৬ নং জাতীয় সড়ক সংলগ্ন এলাকায় একটি পাইপ কারখানা রয়েছে। অভিযোগ, রাতের অন্ধকারে কোনো চিমনি ছাড়াই ও কারখানার সেডের চারদিক দিয়ে ছাড়া হচ্ছে ঘন কালো ধোঁয়া। এই ঘটনা দীর্ঘদিন থেকে ঘটছে বলে স্থানীয়দের দাবি। মাধবপুর, কাশ্যবপুর, যশপুর, কিশোরপুর সহ বিভিন্ন গ্রাম কালো ধোঁয়ার চাদরে ঢেকে যাচ্ছে। গ্রামবাসীরা প্রবল শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। পাশাপাশি, এর জেরে গাছপালার মৃত্যু হচ্ছেও বলে জানিয়েছেন পরিবেশপ্রেমীর। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন...

পাশাপাশি, কারখানার বর্জ্র অ্যাসিড জল কোনোরকম পরিশ্রুত না করেই সরাসরি খালের মাধ্যমে দামোদর নদীতে ফেলা হচ্ছে। এর জেরে খাল সংলগ্ন জমির চাষবাস ব্যাপকভাবে বিপর্যস্ত। মাধবপুর পরিবেশ চেতনা সমিতির সম্পাদক জয়িতা কুন্ডু কুঁতির অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে বেআইনিভাবে বায়ুদূষণ ও জল দূষণ করে চলেছে পাইপ কারখানাটি। এর ফলে মানুষ যেমন বিভিন্ন সমস্যার শিকার হচ্ছেন, নদী তার স্বাভাবিকত্ব হারাচ্ছে। এমনকি কারখানা কর্তৃপক্ষ একাধিক ডিপ টিউবওয়েলের মাধ্যমে বেআইনিভাবে প্রচুর পরিমাণে ভূগর্ভস্থ পানীয় জল তুলে নিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন জয়িতা। তাঁর কথায়, এভাবে চলতে থাকলে অদূর ভবিষ্যতে স্থানীয় এলাকায় পানীয় জলের সংকট দেখা দেবে। এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েই সংগঠনের তরফে এলাকার মানুষের গণস্বাক্ষর সম্বলিত প্রতিবাদপত্র পশ্চিমবঙ্গ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ, উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসক সহ ব্লক প্রশাসনকে পাঠানো হচ্ছে বলে জানান জয়িতা দেবী। এদিনের কর্মসূচিতে স্থানীয় এলাকার মহিলা, শিশু সহ অনেকেই পোস্টার হাতে সামিল হন।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা