আবারও বন্য প্রাণ উদ্ধারে নজির গড়ল উদয়নারায়ণপুর

নিজস্ব সংবাদদাতা : অবশেষে গতকালকের বিলুপ্তপ্রায় আহত ঈগল (changeable Hawk Eagle) পাখিটিকে গ্রামবাসীদের সহযোগিতায় শুভম নন্দীর নেতৃত্বে “আমাদের উদয়নারায়ণপুর” গ্রুপ উদ্ধার করে বনদপ্তরের হাতে তুলে দিতে সক্ষম হল। গত বৃহস্পতিবার পড়ন্ত বিকেলে, সন্ধ্যার প্রাক্কালে বাজপাখিটি উদয়নারায়ণপুরের প্রতাপচকের ভাস্কর পারুই এর বাড়ির ছাদে এসে পড়ে। অনেক তাড়া দেওয়ার পরও না যাওয়ায় ভাস্করের বাড়ির লোকেরা বুঝতে পারে পাখিটি আহত। ওরা আহত পাখিটিকে বাড়ির ভিতরে নিয়ে আসে। সেই বাড়িটির তরফে “আমাদের উদয়নারায়ণপুর” গ্রুপের এডমিন ও স্থানীয় পরিবেশকর্মী শুভম নন্দীর সাথে যোগাযোগ করে। শুভম পাখিটির যথোপযুক্ত রক্ষণাবেক্ষণ এর ব্যবস্থা করে গ্রামীণ হাওড়া যৌথ পরিবেশ মঞ্চের সম্পাদক শুভ্রদীপ ঘোষের মাধ্যমে বনদপ্তরের সাথে যোগাযোগ করে। অনেক প্রতিকূলতা পেরিয়ে বহুবার চেষ্টার পর শুভমরা শুক্রবার দুপুরে ১২টা নাগাদ অবশেষে সক্ষম হয় পাখিটিকে বনদপ্তরের প্রতিনিধির হাতে তুলে দিতে। প্রত্যন্ত গ্রাম-বাংলার এই প্রয়াস যথেষ্ট প্রশংসনীয়। এভাবেই এগিয়ে অসুক শুভম এর মত আরো আরো অনেক তরুণ যুব। এভাবেই দিকে দিকে ছড়িয়ে পড়ুক বন্যপ্রাণ সচেতনতা। প্রাণিবিশেষজ্ঞ ডক্টর সৌরভ দোয়ারীর মতে, “এর বাংলা নাম শা-বাজ। দীর্ঘদিন যাবৎ উদয়নারায়নপুর সংলগ্ন অঞ্চলে দেখা যায়নি। নদী তীরবর্তী অঞ্চলে এখনো মাঝে মাঝে দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এর বর্তমান সংখ্যাগত অবস্থা অনুযায়ী এই উদ্ধার কার্য জীববৈচিত্র্যগত ভাবে এক উল্লেখযোগ্য ঘটনা। এর পূর্বে গ্রামীন হাওড়াতে গুটিকতক মাত্র রেকর্ড আছে এই পাখির।” পুরো উধারকার্যের জন্য পুরো টিম কে অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা