আমতার স্কুলে ভ্যাক্সিনেশন ক্যাম্প, স্বতঃস্ফূর্ততার সাথে ভ্যাক্সিন নিল পড়ুয়ারা, চকোলেট উপহার

নিজস্ব সংবাদদাতা : রাজ্যে ফের লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে কোভিড সংক্রমণ। সংক্রমণে রাশ টানতে ইতিমধ্যেই একাধিক বিধিনিষেধ চালু করেছে রাজ্য সরকার। এরই মাঝে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, সোমবার থেকে ১৫ বছর থেকে ১৮ বছর বয়সীদের ভ্যাক্সিন দেওয়ার কাজ শুরু হল দেশজুড়ে। সোমবার গ্রামীণ হাওড়ার বেশ কয়েকটি স্কুলে ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সী পড়ুয়াদের ভ্যাক্সিন দেওয়া হয়। এদিন ভ্যাক্সিনেশন ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হল আমতা-১ ব্লকের সোনামুই কাদম্বিনী বালিকা বিদ্যালয়ে(উঃমা)। স্কুল সূত্রে জানা গেছে, বিদ্যালয়ে দশম-দ্বাদশ শ্রেণীর ২০৯ জন ছাত্রী রয়েছে যাদের বয়স ১৫ থেকে ১৮ বছরের মধ্যে। বেশিরভাগ ছাত্রীই এদিন স্বতঃস্ফূর্ততার সাথে ভ্যাক্সিন নিতে স্কুলে আসে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা বন্দনা পাঁজা জানান, এদিন মোট ১৮২ জন ছাত্রীকে ভ্যাক্সিন দেওয়া হয়। বেশ কয়েকজন ছাত্রীর জ্বর থাকায় ও কয়েকজন অনুপস্থিত থাকায় তাদের এদিন ভ্যাক্সিন দেওয়া হয়নি। বাকিদের সফলভাবে ভ্যাক্সিন দেওয়া হয়েছে। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন…

পাশ্ববর্তী স্কুলে যখন ভ্যাক্সিন হবে তখন বাকি থাকা পড়ুয়ারা ভ্যাক্সিন নিতে পারবে। তিনি আরও জানান, ভ্যাক্সিনেশন ক্যাম্প পরিদর্শনে আসে স্বাস্থ্য দপ্তরের মেডিকেল টিম। দু-একজন ছাত্রী ভ্যাক্সিন নিতে প্রাথমিকভাবে ভয় পেলেও তাদের সাহস জোগান স্কুলের শিক্ষিকারা। এদিন শিক্ষিকাদের তরফে ভ্যাক্সিন নিতে আসা সকল পড়ুয়ার জন্য চকোলেটের বন্দোবস্ত করা হয়। অতিরিক্ত জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক (মাধ্যমিক) বনমালী জানা ‘উলুবেড়িয়া সংবাদ’-এর প্রতিবেদককে জানান, এদিন উলুবেড়িয়া মহকুমার মোট দ’শটি বিদ্যালয়ে প্রায় পাঁচ হাজার পড়ুয়াকে ভ্যাক্সিন দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা