উলুবেড়িয়ার শ্রমিক মেলা থেকে বঞ্চনার অভিযোগ তুললেন শ্রমিকেরা

নিজস্ব সংবাদদাতা : অসংগঠিত শ্রমিকদের কাছে সরকারি সুবিধা আরও পৌঁছে দিতে গ্রাম পঞ্চায়েত স্তরে বেশি করে ক্যাম্প করার উপর জোর দিচ্ছে শ্রম দফতর। জানুয়ারি মাস জুড়ে তারা এই ক্যাম্প করবে।মঙ্গলবার উলুবেড়িয়া মহকুমা শ্রমিক মেলার উদ্বোধনে এসে শ্রম দফতরের হাওড়ার যুগ্ম কমিশনার রজত পালা সেকথা জানান। তিনি বলেন সারা রাজ্য জুড়ে শ্রমিক কল্যাণে জানুয়ারি মাাস ধরে চলছে সামাজিক সুরক্ষা মাস। ব্লক স্তরে চলছে ক্যাম্প। পঞ্চায়েত স্তরেও তা চলছে। এখনও সব পঞ্চায়েতে তার শুরু হয় নি। দ্রুত তা শুরু করতে বলা হয়েছে। আরও বেশি করে এই ক্যাম্প করতে বলা হয়েছে পঞ্চায়েতগুলোকে। উলুবেড়িয়া পুরসভার পার্কিং প্লেসে এই শ্রমিক মেলার শুরু হয় আজ মঙ্গলবার। মেলার উদ্বোধন করেন বিধায়ক পুলক রায়, ইদ্রিস আলি। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উলুবেড়িয়া পুরসভার চেয়ারম্যান অভয় দাস, ভাইস চেয়ারম্যান আব্বাসউদ্দিন খান সহ শ্রম দপ্তরের আধিকারিকরা। এদিন শ্রমিক মেলার অনুষ্ঠানে বেশ কিছু শ্রমিকের হাতে সরকারি সাহায্যের চেক তুলে দেওয়া হয়। বিধায়ক পুলক রায় তৃনমূল সরকার তার শাসনকালে রাজ্যে ২ লক্ষ ৮৪ হাজার ১৩০ জন অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মরত শ্রমিকের নাম নথিভুক্ত করেছে। যা বিগত সময়ে সংখ্যাটা ছিল মাত্র ১ লক্ষ ২৮ হাজার ১৪৮। আমাদের সময়ে সরকারী সাহায্য পেয়েছেন ৭০ হাজার ৯৭৭ জন শ্রমিক। বিগত সরকারগুলোর আমলে মাত্র ২,৫০৫ জন শ্রমিক উপকৃত হয়েছিলেন। তাছাড়া বিরোধীদের তৃণমূল সরকারকে কটাক্ষ করে খেলা, মেলার সরকার বলে। এর উত্তরে পুলক রায় বলেন মেলা হল উপলক্ষ্য ,আমাদের সরকারের লক্ষ্য হল শ্রমিকদের সামাজিক সুরক্ষা প্রদান । শুধু মাত্র উলুবেড়িয়া মহকুমাতে মাত্র নয় বছরে উপকৃত শ্রমিকের সংখ্যা ২৫৮১। মেলাতে খান‌ পঞ্চাশ স্টল বসেছে। এই মেলা থেকেই অনলাইনে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা প্রকল্পে নির্মাণ শ্রমিক সহ বিভিন্ন ধরনের অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকদের নাম নথিভুক্তকরন করছেন শ্রম দফতরের কর্তারা। তারা জানান সারা বছর ধরেই এই নাম নথিভুক্তকরন প্রক্রিয়া চলে। সামাজিক সুরক্ষা যোজনা প্রকল্পে নথিভুক্ত শ্রমিকরা নানান সরকারি সুবিধা পেয়ে থাকেন। প্রসঙ্গত বুধবার বিকেলে একদল শ্রমিক বঞ্চনার অভিযোগ তুললেন শ্রমিক মেলায়। তারা অভিযোগ করেন আবেদনের পর বছর তিন চার কেটে গেলও তারা পাচ্ছেন না পেনশন, যন্ত্রপাতি কেনার টাকা বা চিকিৎসা বাবদ প্রাপ্য পাওনা। তারা বিভিন্ন ক্ষেত্রে বঞ্চনার অভিযোগের প্লাকার্ড গলায় ঝুলিয়ে মেলার গেটের সামনে দাঁড়িয়ে থাকেন। হাওড়া জেলা নির্মাণ শ্রমিক সংগঠনের সম্পাদক চিন্ময় ভট্টাচার্য বলেন, সরকার আগে বঞ্চিত শ্রমিকদের পাশে দাঁড়াক। তারপর শ্রমিক মেলা করুক।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা