উলুবেড়িয়া মহকুমা জুড়ে ছেলে ধরার গুজব, আতঙ্কে জনসাধারণ

নিজস্ব সংবাদদাতা: সারা উলুবেড়িয়া মহকুমা জুড়ে ছেলে ধরার গুজব। শ্যামপুর থানা এলাকার রাধাপুরে ২ মহিলাকে এবং মায়াচর এলাকায় গনপিটুনি কবলে এক ব্যক্তি। মারধোর শুরু করে এলাকার কয়েকশো মানুষ। । বেশ কয়েকদিন ধরেই ছেলে ধরার গুজবে সরগরম উলুবেড়িয়া মহকুমার বিভিন্ন এলাকা। অভিযোগ‌ এলাকার এক বাচ্চা মেয়ে কে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল এই দুই মহিলা। পরে স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা তাদের উদ্ধার করে ঢুকিয়ে দেয় স্থানীয় রাধাপুর অঞ্চল অফিসে। এই দুই মহিলাকে তাদের হাতে তুলে দেওয়ার দাবিতে অঞ্চল অফিস ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে এলাকার কয়েকশো মানুষ। পরে শ্যামপু্র থানা থেকে বিশাল পুলিশ বাহিনী ও র‌্যাফ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে শ্যামপুর থানায় নিয়ে যায়। অন্যদিকে শ্যামপুর থানা এলাকা সংলগ্ন পূর্ব মেদিনীপুরের অন্তর্গত মায়াচক এলাকায় এক ব্যক্তিকে উদ্দেশ্যে হীন ভাবে ঘোরাঘুরি করতে দেখে সন্দেহ হয় এলাকার লোকজনের। অভিযোগ তাকে বারবার নাম পরিচয় জানতে চাইলে কোনো সদুত্তর না পেয়ে গাছে বেঁধে রেখে বেধড়ক মারধোর শুরু করে এলাকার লোকজন। পরে ঘটনার খবর পেয়ে নিজেদের থানা এলাকা না হলেও তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় রাধাপুর হাসপাতালে ভর্তি করে শ্যামপুর থানার পুলিশ। অন্যদিকে বাগনানের তামুলতলা ও জগৎবল্লভপুরের কমলাপুর থেকেও ছেলেধরা গুজবে গনপিটুনির খবর পাওয়া গেছে। ঘটনা প্রসঙ্গে হাওড়া গ্রামীন জেলার পুলিশ সুপার গৌরব শর্মা জানিয়েছেন চারিদিকে গুজব ছড়াচ্ছে। বেশকিছু এই ধরনের মারধোরের ঘটনা ঘটছে। প্রতিটি থানাকে গুজব রুখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। জনগণের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে যদি কোনো কিছু সন্দেহজনক মনে হয় পুলিশের সাহায্য নিতে। আইন নিজের হাতে তুলে নিলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মারধোরের ঘটনায় হাওড়া গ্রামীন এলাকা থেকে এখনও পর্যন্ত ১৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *