নেশামুক্ত কৈশর জীবন চাই” সমাজের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিতে, পদযাত্রা

নিজস্ব সংবাদদাতা -উলুবেড়িয়া: “নেশামুক্ত কৈশর জীবন চাই” সমাজের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিতে ধামসা মাদলের তালে তালে পা মেলালো বিদ্যালয় ও কলেজের ছাত্র ছাত্রী মুনমুন,পাপিয়া,বীথিকা, চিরঞ্জীতরা। রবিবাসরীয় সকালে দীর্ঘ প্রায় আট কিলোমিটার পথ হাঁটলো ওরা।  শিক্ষক শিক্ষিকা থেকে শুরু করে সমাজের সর্বস্তরের মানুষও সামিল হলো ওদের সাথে।হাতে হাতে নানাবিধ পোস্টার ,তাতে লেখা “নেশা, মোবাইলের অপব্যবহার,ফেসবুকে ইন্টারনেটের কু অভ্যাসে জড়িয়ে পড়ছে না তো আপনার সন্তানরা।নজর রাখুন। সচেতন থাকুন”। এমনই সচেতনতার বার্তা দিতে রবিবার উচ্চ শিক্ষালয় কোচিং সেন্টারের উদ্দ্যোগে হুগলির বাড়বাউন থেকে হাওড়ার ঝিকিরা পর্যন্ত বর্নাঢ্য পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হলো। সকালে পদযাত্রায় সূচনা করেন এস এস সি র চেয়ারম্যান সৌমিত্র সরকার। হাওড়া ও হুগলির সীমানাবর্তী এলাকার একাধিক স্কুল কলেজের পাঁচ শতাধিক ছাত্রছাত্রীরা এই পদযাত্রায় অংশগ্রহণ করে বাদ্যযন্ত্র, ম্যাসকট,রনপা,আদিবাসী শিল্পীরা সমন্বিত এই সচেতনতার প্রচার যাত্রায়। পদযাত্রায় পা মেলাতে মেলাতে জয়পুর পঞ্চানন কলেজের কলা বিভাগের ছাত্রী মুনমুন জানালো ছাত্রাবস্থায় অনেকে ছাত্র ছাত্রী নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়ে।অনেকে আবার না বুঝেই  কম্পিউটারের মাধ্যমে বিভিন্ন মারন গেমে জড়িয়ে পড়ে। এই বিষয়ে আমাদের মতো ছাত্র ছাত্রীদের সচেতন করতে আমরা এই পদযাত্রায় সামিল হয়েছি।এ বিষয়ে উচ্চ শিক্ষালয়ের কর্ণধর সেখ রফিকুল ইসলাম বলেন কৈশর জীবনেই অনেকে নেশাগ্রস্হ হয় পড়েন।আবার দীর্ঘ সময় ধরে সেল ফোন ব্যবহার করে।যেটা অনেকেরই অনেক সময়  কু অভ্যাসে পরিনত হয়।আমরা এই পদযাত্রার মাধ্যমে শুধু ছাত্র ছাত্রীকে সচেতন করাই নয় এই বিষয়ে তারা যাতে নিজেদের সন্তানদের দিকে  যথাযথ নজর দেয়, অভিভাবকরা সে কথাও জানানোর চেষ্টা করেছি।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.