সেনাবাহিনীর জঙ্গি নিকেশে খুশি বীরগতি প্রাপ্ত জ‌ওয়ানের মা বনমালা সাঁতরা

নিজস্ব সংবাদদাতা: ছেলের মৃত্যুর ঘটনার প্রধান ষড়যন্ত্রকারী সহ ২ জৈশ মহম্মদ জঙ্গি কমান্ডারের মৃত্যুতে ছেলের আত্মা শান্তি পাবে বলে জানালেন কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় বীরগাতি প্রাপ্ত বাবলু সাঁতরার মা বনমালা সাঁতরা। সোমবার সকালে বাবলু সাঁতরার বাউড়িয়ার বাবলু সাঁতরার বাড়িতে গিয়ে দেখা গেল ছেলের ছবি হাতে নিয়ে এখনো কেঁদে চলেছেন বনমালা দেবী। স্বামীকে শেষ বিদায় জানিয়ে নিজেকে গৃহবন্দি করে রেখেছেন স্ত্রী মিতা সাঁতারা। দাদার পরলৌকিক কাজের প্রস্তুতি নিচ্ছে ভাই কল্যাণ সাঁতারা। সংবাদমাধ্যমের কাছে সেনাবাহিনীর হাতে ২ জঙ্গি নিকেশ হও‌য়ার খবর শুনে বনমালা সাঁতরা বলেন ছেলের মৃত্যুর ৫ দিনের মাথায় তার মৃত্যুর বদলা নিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। তাতে তিনি খুশি। এতে ছেলের আত্মা শান্তি পাবে। বীরগাতি প্রাপ্ত জ‌ওয়ান বাবলু সাঁতরার ভাই কল্যাণ সাঁতারা বলেন সকালে সংবাদমাধ্যমের দেখে জানতে পারি আজ‌ও ৪ জন‌ সেনার বীরগাতি প্রাপ্ত হয়েছে। তাদের পরিবারকে সমবেদনা জানাই। তিনি বলেন মূল চক্রান্তকারীদের মৃত্যুতে দাদার আত্মা শান্তি পাবে। তিনি আরো বলেন এই ধরনের অপারেশন চালিয়ে যাওয়া উচিত যাতে সমস্ত জঙ্গীদের নিধন করা যায় পাশাপাশি দেশের মধ্যে লুকিয়ে থাকা জঙ্গিদের বিরুদ্ধে আগে ব্যাবস্থা গ্রহন করা উচিত বলে তিনি জানান। বাবলু সাঁতরার বন্ধু তথা প্রতিবেশী অনির্বাণ দত্ত চৌধুরী বলেন জঙ্গি সংগঠন গুলিকে শিকড় থেকে উপড়ে ফেলতে হবে যাতে করে যাতে করে সন্ত্রাসবাদী আক্রমণে‌ কোনো মায়ের কোল খালি না হয়। তার দাবি সন্ত্রাসবাদীদের আশ্রয় দেওয়া ঘর শত্রুদের বিরুদ্ধে আগে ব্যাবস্থা গ্রহন করতে হবে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.