সবুজ ফুলকপি ব্রোকলি চাষ হাঁসি ফোটাচ্ছে বাগনানের চাষীদের মুখে

নিজস্ব সংবাদদাতা : উলুবেড়িয়া-সবুজ ফুলকপি ব্রোকলি চাষ হাঁসি ফোটাচ্ছে বাগনানের চাষীদের মুখে। কৃষি দফতর সুত্রে জানা গেছে ব্রোকলি চাষ করে অল্প সময়ের মধ্যেই সাধারণ ফুলকপি চাষের থেকে বেশী লাভ পাচ্ছেন ব্রোকলি চাষীরা। বিগত একবছর আগে থেকে পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষ থেকে চাষীদের কৃষি পরামর্শ দেওয়ায় চাষীদের মধ্যে চাষের পুরানো ধ্যান ধারণা বদলাতে শুরু করে। যে সমস্ত চাষীরা কপি বলতে শুধু মাত্র ফুল কপি বা বাঁধা কপি বুঝতেন। তারাই এখন ব্রোকলি চাষে উৎসাহ দেখাচ্ছেন। বাগনানের কালিকাপুর, গোপালপুর, বাড়ভগবতীপুর এলকার বেশ কয়েক বিঘা জমিতে করা হয়েছে ব্রোকলি চাষ। এক ব্রোকলি চাষী হেমন্ত বেজ জানান ব্রোকলি চাষ করার জন্য পঞ্চায়েত থেকে বীজ ও সার কেনার টাকা পেয়ে ব্রকলি করেছেন। সাদা ফুলকপির তুলনায় সবুজ কপি ব্রকলি চাষ করে অনেক বেশি লাভবান হয়েছেন বলেও তিনি জানান। গ্রামের দিকে ব্রকলির ঠিক মতো বাজার না থাকায় চাষীরা কিছুটা সমস্যায় পরতে হচ্ছে বলেও তিনি দাবি করেন।বাগনান ১ নং পঞ্চায়েত সমিতির বনভূমি ও পর্যটন দফতরের কর্মাধ্যক্ষ চন্দ্রনাথ বসু জানান উন্নত প্রযুক্তি ব্যাবহার করে এই চাষে মাত্র তিন মাসের মধ্যেই ভালো ফল পাচ্ছেন ব্রোকলি চাষীরা। সেই কারণে ব্রকলি চাষে আরও উৎসাহিত হচ্ছে চাষীরা।উন্নত কৃষি প্রশিক্ষণের ফলে চাষীদের আয় তিন গুন বৃদ্ধি পেয়েছে দাবি করে তিনি জানান ফলনশীল বীজ ও উন্নত প্রযুক্তি ব্যাবহার করে চাষীদের আরও লাভবান করে তোলাই তাদের লক্ষ্য। বাগনান ১ নং ব্লকের ব্লক টেকনোলজি ম্যানেজার দিব্যেন্দু সামন্ত বলেন আত্মা প্রকল্পে কৃষি দফতরের সহায়তায় পরীক্ষামূলক ভাবে ব্রকলি চাষ করা হয়েছে। ব্রকলি চাষ করার জন্য চাষীদের বীজ দেওয়ার পাশাপাশি বীজ তৈরীর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। সার কেনার টাকাও চাষীদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও জানান এই কপি চাষ করতে কীটনাশক ব্যবহার করা হয়না। পোকা মারতে শুধু নীম তেল ব্যবহার করা হয় এবং সারের পরিমাণ কম লাগে। পাশাপাশি অ্যান্টি অক্সিজেন থাকায় এই কপি ক্যান্সার প্রতিরোধ করে বলেও তিনি জানান। সাধারণ সাদা কপির তুলনায় এই কপি  দাম প্রায় দ্বিগুণ জানিয়ে তিনি বলেন শহরের বাজারে এই কপির চাহিদা থাকলেও গ্রামের বাজারে এর চাহিদা কিছুটা কম থাকায় চাষীরা কিছুটা সমস্যায় পড়ছেন। তবে ধীরে ধীরে এই কপির চাহিদা বাড়ছে বলে তিনি জানান।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.