লকডাউনের জের! মধ্যরাতেই রাজীব গান্ধীর জন্মদিন পালন কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকদের

নিজস্ব সংবাদদাতা : রাজ্যজুড়ে পূর্ণ লকডাউন। লকডাউন না ভেঙেই মধ্যরাতে অভিনব উপায়ে দেশের কনিষ্ঠতম প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর জন্মদিন পালন করলেন কংগ্রেস কর্মীরা। গতকাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার ছিল ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর জন্মদিন। সেই উপলক্ষ্যেই বুধবার মধ্যরাত থেকে কোলকাতায় রাজীব গান্ধীর প্রায় প্রত্যেকটি মূর্তিকে স্যানিটাইজ করে শ্রদ্ধা জানালেন কংগ্রেস নেতা-কর্মীরা। আইএনটিইউসি কর্মীরা পিপিই পরেই শহরের বিভিন্ন জায়গায় রাজীব গান্ধীর মূর্তি স্যানিটাইজ করেন। মধ্যরাতেই প্রথমে স্যানিটাইজ করা হয় আমহার্স্ট স্ট্রিটে থাকা রাজীব গান্ধীর মূর্তি। সেখানে মাল্যদান করেন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

সদ্যপ্রয়াত কংগ্রেস নেতা সোমেন মিত্রের বাড়ির সামনের রাজীব গান্ধী মূর্তি দিয়ে শুরু করে একে একে সমস্ত মূর্তিই স্যানিটাইজ করা হয়। কোথাও আগের দিন আবার কোথাও গভীর রাতে পালিত হল প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর জন্মদিন। উদ্যোক্তাদের কথায়, লকডাউন মেনে তাঁরা নিজেদের মতো করে প্রয়াত প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন করলেন। উল্লেখ্য, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা ইন্দিরা গান্ধীর প্রয়াণের পর ১৯৮৪ সালে কংগ্রেসের দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন রাজীব গান্ধী। ১৯৮৪ সালের অক্টোবর মাসে মাত্র ৪০ বছর বয়সে কনিষ্ঠতম হিসাবে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর পদে অধিষ্ঠিত হন তিনি। ১৯৮৯ সালের ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত তিনি সেই পদ সামলেছেন। ১৯৯১ সালে ২১ মে লিবারেশন টাইগারস অফ তামিল এলাম হামলায় জীবনাবসান হয় রাজীব গান্ধীর। শ্রীপেরুমপুদুরে নির্বাচনী প্রচার সভায় গিয়ে আত্মঘাতী মানব বোমা বিস্ফোরণে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা