টিউশন কিংবা কোচিং করাতে পারবেন না সরকারি বেতনভুক্ত শিক্ষকরা, জারি কড়া নির্দেশিকা

নিজস্ব সংবাদদাতা : রাজ্য সরকারের কোষাগার থেকে বেতন পান এমন কোনো শিক্ষক প্রাইভেট টিউশন করতে পারবেন না। কড়া নির্দেশিকায় জানাল স্কুল শিক্ষা দপ্তরের কমিশনার। এই নির্দেশিকা অবশ্য নতুন নয়। জানা গেছে, সম্প্রতি একটি সংগঠনের তরফে শিক্ষা দপ্তরের কাছে অভিযোগ জানানো হয়। বেশ কিছু নির্দিষ্ট শিক্ষক-শিক্ষিকার বিরুদ্ধে প্রাইভেট টিউশন করার অভিযোগ আনে সংগঠনটি। অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নামে শিক্ষা দপ্তর। দেখা যায়, অভিযোগ সত্যি। তারপরই ফের কড়া নির্দেশিকা দিয়ে স্মরণ করায় রাজ্য শিক্ষা দপ্তর। সম্প্রতি জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, রাজ্যের সমস্ত সরকারি স্কুল, সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুল, মডেল স্কুল এবং এনআইজিএসগুলির শিক্ষক-শিক্ষিকারা কোনো ভাবে প্রাইভেট টিউশন করতে পারবেন না। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন...

এমনকি কোনো কোচিং সেন্টারেও পড়াতে পারবেন না। নিয়ম অমান্য করলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষক-শিক্ষিকার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বিরুদ্ধে টিউশনের অভিযোগ অবশ্য নতুন নয়। অভিযোগ, রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের মতো হাওড়া গ্রামীণ এলাকাতেও বহু শিক্ষক-শিক্ষিকা প্রাইভেট টিউশনের সাথে যুক্ত। এব্যাপারে জেলা শিক্ষা দপ্তরের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক জানান, কোনো শিক্ষকের বিরুদ্ধে টিউশনের অভিযোগ থাকলে আমাদের জানান। আমরা তা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠাব। এবিষয়ে হাওড়া জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান কৃষ্ণ ঘোষ প্রতিবেদককে জানান, এব্যাপারে কোনো প্রাথমিক শিক্ষকের বিরুদ্ধে আমাদের কাছে অভিযোগ এলে আমরা তার বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত পদক্ষেপ নেব।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা