আমেরিকায় স্পেশাল অলিম্পিক ফুটবলে গ্রামীণ হাওড়ার জাহিরা ও ইত্তেসামা

নিজস্ব সংবাদদাতা : চলতি বছরের জুলাইয়ের শেষে আমেরিকার মিচিগানের ডেট্রয়েটে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে স্পেশাল ইউনিফায়েড ফুটবল কাপ-২০২২। এই আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টে ভারতীয় মহিলা ফুটবল দলের হয়ে অংশ নিতে চলেছেন গ্রামীণ হাওড়ার দু’ই কন্যা জাহির খাতুন ও ইত্তেসামা খাতুন। ইতিমধ্যেই এই টুর্নামেন্টের জন্য ভারতীয় মহিলা ফুটবল দলের ১৫ জন সদস্যার নাম ঘোষণা করা হয়েছে। আর তাতেই জায়গা করে নিয়েছেন গ্রামীণ হাওড়ার উলুবেড়িয়া-১ ব্লকের বহিরা গ্রামের জাহিরা খাতুন ও উদয়নারায়ণপুর ব্লকের খলৎপুরের ইত্তেসমা খাতুন। ইত্তেসামা ও জাহিরার জীবনটা আর পাঁচজনের থেকে অনেক কঠিন। জীবন জুড়ে প্রতিবন্ধকতা। তার মাঝেই স্বপ্ন দেখা। ছোটো থেকেই শারীরিক প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন ইত্তেসামা ও জাহিরা। ইত্তেসামার বাকশক্তি ও শ্রবণগত সমস্যা রয়েছে। বিস্তারিত জানতে নীচে পড়ুন…

জাহিরার জীবন জুড়ে লড়াই। হত দরিদ্র পরিবারে জন্ম। জাহিরার বাবা মা-কে ছেড়ে চলে যায়। মা পরিচারিকার কাজ করে কোনোরকমে সংসার চালান। এই পরিস্থিতিতে ইত্তেসামা ও জাহিরা দু’ই কন্যারই লড়াইয়ের সঙ্গী হয় উলুবেড়িয়ার আশা ভবন সেন্টার। বর্তমানে দু’জনেই উলুবেড়িয়ার কাঠিলার আশা ভবন সেন্টারের আবাসিক। আশা ভবন সেন্টারের উদ্যোগেই পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলা চালিয়ে যাচ্ছে দু’ই লড়াকু কন্যা। পড়াশোনার পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটির উদ্যোগে নিয়মিত চারঘন্টার কঠোর অনুশীলন চালিয়ে নিজেদের প্রস্তুত করেছে জাহিরারা।

সে-ই কঠোর অনুশীলন, প্রতিভা ও সর্বোপরি অদম্য ইচ্ছেশক্তিকে সাথে নিয়ে এবার আমেরিকার উদ্দেশ্যে উড়ে যাবে দু’ই কন্যা। আশা ভবন সেন্টারের ডিরেক্টর জন মেরি বাড়ুই জানান,”আগামী ২৮ শে জুলাই থেকে ৭ ই আগস্ট অব্ধি মিচিগানের ডেট্রয়েট শহরে এই টুর্নামেন্টটি অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। সেখানেই আমাদের প্রতিষ্ঠানের দু’ই ছাত্রী অংশ নিতে চলেছে।” তাঁর কথায়,”এই আনন্দ ভাষায় ব্যক্ত করা সম্ভব নয়। এভাবেই সমস্ত প্রতিকূলতার বেড়াজালকে ছিন্ন করে ওরা সাফল্যের শিখরে পৌঁছে যাক”। আর আবেগঘন, অশ্রুসজল চোখে ইত্তেসামা, জাহিরারা জানায়,”সকলে না থাকলে আমরা এই জায়গায় পৌঁছতে পারতাম না”।

Author: নিজস্ব সংবাদদাতা